Breaking News
Home / INSPIRATION / কে’উ আর অভুক্ত থাকবেন না, 5 টাকা নয় এবার মাত্র 1 টাকায় খাবার পাবেন, গৌতম গম্ভীরের রেস্তোরাঁতে

কে’উ আর অভুক্ত থাকবেন না, 5 টাকা নয় এবার মাত্র 1 টাকায় খাবার পাবেন, গৌতম গম্ভীরের রেস্তোরাঁতে

ভারতে অনাহার একটি সমস্যা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই অনাহারের কারণে প্রতিদিন অনেক লোক মারা যায়। এমন অনেক লোক আছেন যারা নিজে এবং নিজের পরিবারকে একবার খাওয়ানোর জন্য সারাদিন কঠোর পরিশ্রম করেন। কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতির জন্যে অনেকেই নিজের কাজ হারিয়েছে এবং এই লকডাউন এর জন্য অনেক দরিদ্র মানুষ যারা প্রতিদিন রোজগার করলে তবেই তাদের খাবার জোটে,

কিন্তু এখন সেই রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে বলা যায়। গতবছর এবং এই বছর না খেতে পেয়ে অনেক মানুষ মারা গেছে ভারতে। এমন পরিস্থিতিতে এমন অনেক মানুষ আছে যারা সরকারকে সাহায্য করছেন এবং নিজেরাও সাহায্য করার চেষ্টা করছেন এই দরিদ্র মানুষগুলোকে। এমনই একজন মানুষ হলেন সনু সুদ যিনি গত বছর থেকে এখনো পর্যন্ত সাহায্য করেছেন হাজারো মানুষের।

এইবার এই অনাহারের সমস্যা মেটাতে সাহায্য করলেন প্রাক্তন ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর। তিনি পূর্ব দিল্লির গান্ধী নগরে 1 টাকায় খাবার দেওয়ার প্রকল্প চালু করেছেন। এই প্রকল্পটির কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচলিত হয়। এরপরে একজন ইউটিউবার এখানে আসেন। তিনি একজন ফুড রিভিউয়ার তার চ্যানেলের নাম হল Foodie incarnate।

আমাদের মধ্যে হয়তো অনেকেই তাকে চিনি, তিনি বিভিন্ন জায়গায় ফুড রিভিউ করেন। ভিডিওটিতে আমরা দেখতে পাচ্ছি তিনি বাকি সবার মতনই লাইন দিয়ে খাবার খেতে যাচ্ছেন। লাইন দিয়ে তিনি এক টাকা দিয়ে একটি টোকেন নিলেন এবং তার পরে ভেতরে গেলেন, তারপর সেই টোকেনটি কে একটি পাত্রের মধ্যে রেখে দিলেন সেখানে সেই টোকেনটি স্যানিটাইজ হয়ে যাবে,

যাতে কাউরির করোনা থাকলে সেখান থেকে না ছড়ায়। তারপর সেখানে খাবারের থালি নেওয়ার জন্য লাইন দিয়ে খাবারের থালি নিলেন। তারপর তিনি সেখানকার খাবার দেখান যে কতটা ভালো মানের। তারপর তিনি সেখানকার স্টাফদের জিজ্ঞেস করেন যে আজকের মেনু তে কি আছে, মেনুতে ছিল লোধিয়া চাওয়াল এবং সালাড।

তারপর তিনি খাবারটি নেন এবং জানান যে আপনি এখানে এমন নয় যে এক টাকা দিয়ে একটা থালি পাবেন আপনি যত ইচ্ছা নিতে পারেন খাবার। তারপর তিনি খাবারটি খান এবং সেটির প্রশংসা করেন ও সেখানে আরো যারা খাচ্ছিল তাদেরকে জিজ্ঞেস করে খাবারের মান সম্বন্ধে তারা জানায় সেখানে রোজ আলাদা আলাদা তরকারি দেওয়া হয় যেমন কোনো কোনো দিন রাজমা চাওয়াল ও দেওয়া হয়। এর পরে তিনি সেখানকার ম্যানেজারের সাথে কথা বলেন,

সেখানকার ম্যানেজার জানায় যে এটি বারোটা থেকে দুটো অবধি খোলা থাকে এবং সোমবার বন্ধ থাকে। তারপর তিনি সেখানকার খাবারের প্রশংসা করেন এবং গৌতম গম্ভীরের এই উদ্যোগকে সম্মান জানায়। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত 43 মিলিয়ন মানুষ দেখেছেন এবং 1.9 মিলিয়ন রিয়াক্ট এসেছে ও অজস্র কমেন্ট ও এসেছে। ভিডিও টি না দেখে থাকলে ভিডিওটি দেখুন এবং আপনিও আপনার মন্তব্য জানান।।

Check Also

চা’করি ছেড়ে আম চাষ করলেন, 22 ধরনের আম চাষ করে বছরে 50 লাখ টাকা আয় করলেন ইনি, কিভাবে জানুন

আপনি যতই পরা শোনা করুন না কেন আপনি ভালো জায়গায় একটি ভালো কাজ পেয়েও হয়তো ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *