Breaking News
Home / LIFESTYLE / ওয়ার্ক আউট করার আগে চাই এক কাপ কড়া কফি, জমে থাকা মেদ কমবে তাতেই

ওয়ার্ক আউট করার আগে চাই এক কাপ কড়া কফি, জমে থাকা মেদ কমবে তাতেই

ওজন কম করার জন্যই তো জিমে যাওয়া আর এত ঘাম ঝরানো! আসল উদ্দেশ্য হল শরীরে জমে থাকা বাড়তি মেদ বাদ দেওয়া। আর এই পদ্ধতিকে আর একটু দ্রুত লয়ে আনতে দরকার এক কাপ কড়া কফি। না, এটা শুধুই দিন শুরু করার জন্য কিক স্টার্ট দেয় না, সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে অ্যারোবিক এক্সারসাইজ করার আগে এক কাপ কড়া কফি মেদ কমিয়ে দিতে সাহায্য করে।

বলা হচ্ছে যে এক্সারসাইজের আগে ৩ মিলিগ্রাম/ প্রতি কিলোগ্রাম ক্যাফেইন হল একটি কড়া কফির সমান। আর এই কফিই এক্সারসাইজ করার আগে পান করলে মেদ কম হবে বলে গবেষকদের দাবি!

ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অফ স্পোর্টস নিউট্রিশন পত্রিকায় প্রকাশিত এই গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে যে এই কফিপান এবং তার পরেই এক্সারসাইজ যদি দুপুরে হয়, তাহলে আরও বেশি ফল দেবে। সকালে কফি পান ও এক্সারসাইজ এতটাও কার্যকরী হয় না বলেই বলা হয়েছে।

স্পেনের গ্রানাদা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গবেষক ফ্রান্সিসকো হোসে আমারো গাহেতে বলেছেন যে অ্যারোবিক এক্সারসাইজ শুরু করার ঠিক ৩০ মিনিট আগে শরীরে ক্যাফেইন প্রবেশ করলে সেটা এক্সারসাইজ করার সময়ে মেদ গলিয়ে দেবার মাত্রা সর্বাধিক করে দেয়।

খেলাধুলো যাঁরা করেন, তাঁরা অনেকেই খেলা শুরুর আগে কফি পান করেন। গবেষকরা সেটাই বোঝার চেষ্টা করেছেন যে কফিতে উপস্থিত এরগোজেনিক উপাদান ফ্যাট বা চর্বি বার্ন করতে কতটা সাহায্য করে।

এই গবেষণা চালানোর জন্য একটি বিশেষ সমীক্ষা করা হয়। যেখানে গড় বয়স ৩২ এরকম কয়েকজন পুরুষকে বেছে নেওয়া হয়েছিল। এঁরা প্রত্যেকেই সাত দিনের তফাতে দিনে চার বার করে একটি এক্সারসাইজ টেস্ট দিয়েছিলেন। এক্সারসাইজ করার আগে এঁরা প্রত্যেকেই ক্যাফেইন গ্রহণ করেন। সকাল আটটা থেকে বিকেল পাঁচটার মধ্যে এই ক্যাফেইন দেওয়া হয়েছিল।

এক্সারসাইজ শুরু করার আগে বিভিন্ন জিনিস মাথায় রেখেছিলেন গবেষকরা। যেমন ব্যক্তি কতক্ষণ আগে রাতের খাবার খেয়েছেন, কোনও ওষুধ খেয়েছেন কি না, কতটা এক্সারসাইজ করায় তিনি অভ্যস্ত ইত্যাদি।

পরীক্ষায় এটা প্রমাণিত হয়েছে যে দুপুরের দিকে যাঁরা এক্সারসাইজ করার আগে ক্যাফেইন গ্রহণ করেছেন সেটা তাঁদের ফ্যাট বার্নিং অনেক দ্রুত করে দিয়েছে।

Check Also

রা’ন্না ছাড়াও মাইক্রোওভেন দিয়ে এই কাজ গুলো ক’রতে পারেন যা আগে কখনই করেন নি!

মাইক্রোওভেন এখন প্রায় প্রতিটি মধ্যবিত্ত পরিবারেই সামিল৷ খাবার গরম ক’রতে মাইক্রোওভেনের ব্যবহার আম’রা সবাই জানি৷ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *