Breaking News
Home / VIRAL / কি’শো’রীর পে’টে ছি’ল ৪৮ সেন্টিমিটার লম্বা চুল!

কি’শো’রীর পে’টে ছি’ল ৪৮ সেন্টিমিটার লম্বা চুল!

যুক্তরাজ্যের ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরীর চুল কাণ্ডের খবর এখন গোটা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, ওই কিশোরী যে চুলটি গিলে ফেলেছে সেই চুলটি কিশোরীর পেটের ভেতরে গোল পাকিয়ে ৪৮ সেন্টিমিটার লম্বা আকার ধারণ করেছিল। এমনকি আরো ভয়ের বিষয় হলো, সেই চুল তার পাকস্থলীর পর্দা ছিঁড়ে ফেলেছে। ৪৮ সেন্টিমিটার লম্বা চুলটি মেয়েটির সমগ্র পাকস্থলী জুড়ে ছড়িয়ে ছিল। সে রাপুনজেল সিনড্রোমের শিকার হয়েছিল। এই বিরল রোগটি মানুষের মধ্যে চুল গিলে ফেলার ফলে হয়ে থাকে।

জানাযায়, হঠাৎ করে মেয়েটি দুইবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এরপরই তাকে নেওয়া হয় হাসপাতালে। অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে যাওয়ার ফলে তার মুখে এবং তালুতে আঘাত লাগে। ডাক্তারেরা দেখেন যে তার পেটের উপরের অংশ ফুলে রয়েছে। প্রাথমিকভাবে তারা ভাবে যে মাথায় আঘাত পাওয়ার ফলে তার থেকেই এমনটা হয়েছে। তবে মেয়েটি স্বীকার করেছে যে গত ৫ মাসে সে কয়েকবার পেটে খুবই ব্যথা অনুভব করেছে।
তবে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগের দুই মাসে ব্যথা অনেক বেড়ে গিয়েছিল। সিটি স্ক্যান থেকে ধরা পড়ে যে তার পাকস্থলীর গা ঘেঁষে থাকা পর্দার আস্তরণ ছিঁড়ে গেছে এবং বড়ো ধরণের কিছু জিনিস পাকস্থলীতে আটকে রয়েছে।

জানা গেছে, সেই মেয়েটির একটি অভ্যাস ছিল যে সে নিজের চুল নিজেই ছিড়ত এবং মুখে নিয়ে গিলে ফেলতো। এই রোগটিকে ট্রাইকোটিলোম্যানিয়া বলে। চুলটি এতোটাই লম্বা ছিল যে সেটি পাকস্থলীর আকার নিয়েছিল।

“ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর রেয়ার ডিস অর্ডারস”-এর মতে, ০.৫% থেকে ৩%-র মধ্যে মানুষ জীবনের কোনো এক সময়ে ট্রাইকোটিলোম্যানিয়ার শিকার হয়ে থাকে। অন্যদিকে, ১০% থেকে ৩০%- মানুষের আবার ট্রাইকোটিলোম্যানিয়ার পাশাপাশি ট্রাইকোফেজিয়া হয়ে থাকে। এই কিশোরীর মতোই এক রকম একটি ঘটনায় ১৬ বছরের একটি কিশোরীর মৃত্যু হয়েছিল। যুক্তরাজ্যের এই কিশোরীকে ৭ দিনের মধ্যে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে বিষয়টি সত্যি ভাবিয়ে তুলেছে অভিভাবকদের।

সূত্র: কলকাতা২৪, জি নিউজ।

Check Also

কাজের টাকা না দেয়ায় মালিকের পৌনে ৬ কোটির বাড়ি গুঁড়িয়ে দিলেন মিস্ত্রি

বাড়ি তৈরির কাজ করিয়েও পুরো টাকা না দেওয়ায় শাস্তি পেলেন জে কুর্জি নামের এক বাড়িওয়ালা। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *