Breaking News
Home / LIFESTYLE / মারাত্মক ক্ষতিকর অজানা এই ১৩টি বিষয় অবশ্যই জেনে রাখা উচিত…….

মারাত্মক ক্ষতিকর অজানা এই ১৩টি বিষয় অবশ্যই জেনে রাখা উচিত…….

স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে এমন বিষয় নিয়ে আমাদের আজকের আলোচনা।
১.অসুখী সম্পর্কে জড়িয়ে থাকা: সম্পর্কের সমস্যা স্ট্রেস বা মানসিক চাপ সৃষ্টি করতে পারে, যা আপনার সুস্থতায় চাবুক মারতে পারে। অসুখী সম্পর্কের কারণে আপনার স্বাস্থ্য ভেঙ্গে পড়তে পারে। যদি সম্পর্ক সুখের পরিবর্তে মানসিক চাপ বা ক্ষতির কারণ হয়, তাহলে নির্ণয় করার চেষ্টা করুন যে যে কারণে কষ্ট পাচ্ছেন তা আসলেই কষ্ট পাওয়ার মতো কিনা।

২.ঋণ শোধ করতে না পারা: আর্থিক ঋণ শুধুমাত্র আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নয়, আপনার স্বাস্থ্যের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। ৮,৪০০ তরুণ প্রাপ্তবয়স্কের ওপর চালানো একটি গবেষণায় পাওয়া যায়, উচ্চ ঋণ শোধ করতে না পারার সঙ্গে মানসিক চাপ, বিষণ্নতা ও ডায়াস্টোলিক রক্তচাপ বৃদ্ধির সংযোগ ছিল, এছাড়া তাদের সাধারণ স্বাস্থ্যও খারাপ হয়।

৩.ঠান্ডা বা গরম ভাপ নেওয়া: শরীরের বেদনাদায়ক অংশে ব্যথা উপশমে ঠান্ডা বা তাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে অনেকের প্রিয় কৌশল। বিশেষ করে, তলপেট তীব্র ব্যথা (অ্যাপেন্ডিসাইটিস, গলব্লাডারের অসুখ, প্যানক্রিয়েটাইটিস), রক্তপাত, তীব্র প্রদাহ এবং যেকোনো ধরনের মচকান বা আঘাত পাবার প্রথম কয়েক ঘণ্টা বা কয়েক দিনের মধ্যে ঠান্ডা বা তাপ প্রয়োগ, স্বাভাবিক প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে নেয়া হয়।
৪. শহরাঞ্চলে খোলা জুতা পরিধান: গ্রীষ্মকালে আপনি হালকা পোশাকের সঙ্গে অবশ্যই স্বল্প আচ্ছাদন বা আচ্ছাদনহীন খোলা জুতা পরিধান করতে পছন্দ করবেন। কিন্তু এতে আপনার ঝুঁকির দিকটিও ভেবে দেখা উচিত।

৫.চেয়ারে সঠিক ভঙ্গিতে না বসা: আপনার সঠিক ভঙ্গি মানে সব অঙ্গের প্রতিসম অবস্থান। মেরুদণ্ডের যত্ন নিতে আপনার অফিস চেয়ার সমন্বয় করুন এবং এটি সঠিকভাবে বসুন। কেননা গা ছেড়ে কুঁজো হয়ে বসে থাকাটা অনেকেরই অভ্যাস।
৬.উপুড় বা কাঁত হয়ে ঘুমানো: আমাদের অনেকেই যেভাবে ঘুম আসে সেভাবেই ঘুমোতে পছন্দ করি। যদিও উপুড় বা কাঁত হয়ে ঘুমানো, নানা শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি করে। কাঁত হয়ে ঘুমালে মেরুদন্ডে ব্যথা, ফুসফুসীয় সমস্যাসহ নানা শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

৭. শ্বাসের মাধ্যমে সেকেন্ডহ্যান্ড স্মোক গ্রহণ করা: নিজের স্বার্থের কথা চিন্তা করে হলেও সঙ্গীকে ধূমপানের অভ্যাস বর্জন করতে বলা উচিত।
৮. নিয়মিত ব্যায়াম না করা: ব্যায়াম আপনার স্বাস্থ্যের জন্য অবিশ্বাস্যভাবে গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু ওজন হ্রাসের জন্য নয়। নিউ ইয়র্কের ল্যানগোন হেলথের ইন্টারনাল মেডিসিনের ক্লিনিক্যাল ইনস্ট্রাক্টর আলবার্ট আহন বলেন, ‘বিভিন্ন কারণে ব্যায়াম চমৎকার, কিন্তু ওজন হ্রাসের জন্য এটি সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম নয়।

৯.স্ট্রেস সামলাতে না পারা: স্ট্রেস বা মানসিক চাপ কেবলমাত্র মানসিক স্বাস্থ্যের জন্যই খারাপ নয়, এটি আপনার শারীরিক স্বাস্থ্যের ওপরও বিরূপ প্রভাব ফেলে। ‘ফাইট অর ফ্লাইট’ মোড সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া কঠিন করে ফেলে, যার মানে হচ্ছে আপনি অস্বাস্থ্যকর খাবার খেতে পারেন, জিমে যাওয়া ছেড়ে দিতে পারেন এবং আপনার ঘুম ব্যাহত হতে পারে।

১০.আবেগের জন্য খাওয়া: চিকিৎসকরা রিকমেন্ড করেন না এমন একটি স্ট্রেস-বাস্টার হচ্ছে: কমফোর্ট ফুড। ওয়েবএমডি ডটকমের প্রধান মেডিক্যাল সম্পাদক এবং সহযোগী মেডিক্যাল পরিচালক ব্রুলিন্ডা নাজারিও বলেন, ‘আপনি স্বাস্থ্যের জন্য যে খারাপ একটি কাজ করেন তা হলো ইমোশনাল ইটিং বা আবেগ তাড়িত হয়ে ভোজন, এ কাজটি আপনি রাগান্বিত হলে বা মানসিক চাপে থাকলে অথবা বিষণ্ন হলে করে থাকেন।’

১১. ইয়ো ইয়ো ডায়েটিং মেনে চলা: ইয়ো ইয়ো ডায়েটিং অনুসরণ করে সাময়িকভাবে ওজন কমানো হয়, তারপর ওজন পুনরায় বেড়ে যায় এবং আবার ডায়েটিং করা হয়।
১২.পর্যাপ্ত ঘুম না যাওয়া: মাস বা বছর ধরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম না গেলে আপনার স্বাস্থ্যের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, ঘুমের ঘাটতি মানসিক প্রখরতাকে আঘাত করতে পারে, জাঙ্ক ফুডের প্রতি আসক্ত করে তোলে, হৃদরোগের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

১৩. ঘুমের ওষুধের ওপর নির্ভর করা: যে কারো রাতে পর্যাপ্ত সময় চোখ বন্ধ রাখতে সমস্যা হলে তাদের অধিক ঘুমের জন্য স্লিপিং পিল বা ঘুমের বড়ি সঠিক উপায় হতে পারে। স্বল্পমেয়াদী ঘুমের সমস্যার ক্ষেত্রে ঘুমের ওষুধ ভালো হলেও দীর্ঘদিন ধরে এটির ওপর নির্ভর করা ভালো নয়

Check Also

রা’ন্না ছাড়াও মাইক্রোওভেন দিয়ে এই কাজ গুলো ক’রতে পারেন যা আগে কখনই করেন নি!

মাইক্রোওভেন এখন প্রায় প্রতিটি মধ্যবিত্ত পরিবারেই সামিল৷ খাবার গরম ক’রতে মাইক্রোওভেনের ব্যবহার আম’রা সবাই জানি৷ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *