Breaking News
Home / VIRAL / এক ব্যাগের দাম ৫.৩ মিলিয়ন পাউন্ড!

এক ব্যাগের দাম ৫.৩ মিলিয়ন পাউন্ড!

সারাবিশ্বে নানা ধরনের দামী জিনিস রয়েছে। যেগুলোর আকাশ ছোঁয়া দাম শুনলে অবাক না হয়ে উপায় থাকে না। এগুলো কেউ বানান বা কেনেন নিজের শখ মেটানোর জন্য।

অনেকেই আবার দামী কোনো জিনিস তৈরি এবং তা বিক্রয়ের মাধ্যমে সমাজ তথা গোটা পৃথিবীর মানুষকে কোনো বার্তা দিতে চান।

এ ধরনের অনেক জিনিস তাদের নিজ বৈশিষ্ট্য এবং গুণে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড বুকে জায়গা করে নিয়েছে। ঠিক যেমন, ইতালিতে তৈরি হয়েছে নারীদের জন্য ব্যবহৃত এমনই একটি হ্যান্ডব্যাগ, যা বিশ্বের বিলাসিতার সামগ্রীগুলোর মধ্যে সবথেকে দামি হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

ব্যাগটির নকশা, কারুকার্য এবং চামড়ার মানের ওপর নির্ভর করে এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। আর দাম শুনলে যে কারো চোখ কপালে উঠতে বাধ্য।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি এই হ্যান্ডব্যাগটির মূল্য ৫.৩ মিলিয়ন পাউন্ড। জানা গেছে, ইতালির ব্রান্ডেড কম্পানি বোলোনা-ভিত্তিক বোয়ারিনি মিলানেসি তিনটি পার্ভা এমিয়া ব্যাগ তৈরি করেছে। এজন্য প্রায় এক হাজার ঘণ্টা কাজ করতে হয়েছে। সেটাও আবার প্রতি ব্যাগের জন্য।

আধা-চকচকে অ্যালিগেটরের ত্বক থেকে তৈরি হ্যান্ডব্যাগটি ১০ ​​টি সাদা সোনার প্রজাপতি দিয়ে সজ্জিত। এর মধ্যে চারটি হীরা এবং তিনটি নীলকান্তমণি এবং বিরল প্যারাইবা টুরমলাইনস দ্বারা সজ্জিত। ব্যাগটির মোট ওজন ১৩০ ক্যারেটেরও বেশি। এটিতে একটি ডায়মন্ড পাভ ক্লপও রয়েছে।

জানা গেছে, এই ব্যাগের নকশা থেকে শুরু করে দাম নির্ধারণ সমুদ্র দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে করা হয়েছে। এছাড়াও এই ব্যাগ তিনটি বিক্রয়ের পর যে-টাকা আয় হবে তা সামুদ্রিক পরিবেশ প্লাস্টিক মুক্ত এবং পানি দূষণ রোধে ব্যয় করা হবে।

এ ব্যাপারে কম্পানির সহ প্রতিষ্ঠাতা মাত্তিও রোডল্ফো মিলানেসি জানিয়েছেন, কৈশোরে হারানো বাবার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং ছোটোবেলার সমুদ্র ভ্রমণের স্মৃতি দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে সমুদ্রের পরিবেশ বাঁচাতে এই ব্যাগ বিক্রয় করা অর্থ তিনি পুরোটা ব্যয় করতে চান।

যেন দূষণমুক্ত সমুদ্রে প্রাণভরে প্রশ্বাস নিতে পারে জলচরেরা। তার এই ছোট্ট প্রচেষ্টার মাধ্যমে গোটা পৃথিবীর মানুষকে তিনি একটাই বার্তা দিতে চান, প্রকৃতির ধ্বংস লীলায় মত্ত না হয়ে ভবিষ্যত প্রজন্মকে সুরক্ষিত এবং সুন্দর রাখতে এভাবেই সকলে এগিয়ে আসুন।

সূত্র : ডেইলি মেইল

Check Also

মেকআপ করলে আলুকেও সুন্দরী লাগে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে মানুষের জীবনে মনোরঞ্জনের অভাব হয়না। মানুষের অভিনব ট্যালেন্ট হোক বা হাসির কোনো ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *