Breaking News
Home / HEALTH / বুকে জমা দীর্ঘ বছরের ক’ফ-কা’শি, তীব্র শ্বা’স’ক’ষ্ট! মাত্র তিনদিনের মধ্যে দূর করতে হলে এই দুই উপাদান যেভাবে খাবেন!

বুকে জমা দীর্ঘ বছরের ক’ফ-কা’শি, তীব্র শ্বা’স’ক’ষ্ট! মাত্র তিনদিনের মধ্যে দূর করতে হলে এই দুই উপাদান যেভাবে খাবেন!

যত দিন যাচ্ছে ততই যেন জাঁ-কি-য়ে বসেছে ঠান্ডার আবহাওয়া । আকাশ থেকে মেঘ ধরা মাত্রই ঠান্ডাটা ভালো মতন অনুভব করা যাচ্ছে এই রাজ্যজুড়ে । অনেকে হয়তো ভেবেছিল যে হয়তো তেমন ভাবে ঠান্ডা পড়বে না । কিন্তু তারা যে সম্পূর্ণ রকমভাবে ভুল তা আজ তারা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে । এই ঠান্ডা বা শীত এর সাথে ওতপ্রোতভাবে যেই জড়িত সেটি হল জ্ব-র এবং শ্বা-স-ক-ষ্ট । অর্থাৎ বুকের মধ্যে যদি কোন কারনে সর্দি জমে থাকে তাহলে শ্বা-স-ক-ষ্ট দেখা দেবে এমনটা খুব স্বাভাবিক কিন্তু বর্তমান যুগে যা পরিস্থিতি তাতে স্বল্প পরিমাণ শ্বা-স-ক-ষ্ট দেখা দিলে মানুষকে উ-দ্বেগের মধ্যে ফেলতে বা-ধ্য করে ।

উপায় বলতে একটাই আছে যেনতেন প্রকারে শ্বা-স-ক-ষ্ট কে দূর করতে হবে এবং বুকের মধ্যে জমে থাকা সর্দি কেউ বাইরে টেনে বের করতে হবে এর জন্য অনেকেই হয়তো অনেক রকম পন্থা অবলম্বন করেছেন । কিন্তু মেলেনি তেমনভাবে কোন ফল । তবে আজ আপনাদের সামনে বলতে এলাম এমন বেশ দুটি উপাদান যা তিন দিন নিয়মিত সেবন করলে বুকের মধ্যে জমে থাকা থেকে স-র্দি-কা-শি সব নিমিষে মুক্তি পাবেন । তার সাথে সাথে মুক্তি পাবেন শ্বা-স-ক-ষ্ট থেকে । আসুন দেখে নেওয়া যাক কি সেই উপাদান।

কমলালেবু:– কমলালেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং অ্যা-ন্টি-অক্সিডেন্ট যার ফলে এটি সর্দি ঠান্ডা লাগা থেকে শরীরকে মুক্তি দেয় । লেবুর ভিটামিন সি ক্যা-ন্সা-রে-র সেল গঠন প্রতিরোধ করে।লেবু শরীরের ক্ষ-তি-ক-র ব্যা-ক-টেরিয়াগুলোকে ধ্বং-স করে । ঠান্ডা লাগে লেগে যাওয়ার ফলে যে সমস্ত ব্যা-ক-টে-রি-য়া ভা-ই-রা-স আমাদের শরীরে বাসা বেঁধে থাকে সেই সমস্ত ভাইরাসকে নিমিষেই দূর করে এই কমলালেবু । অতএব বুকে সর্দি সম্পূর্ণ রকম ভাবে সারিয়ে তুলতে এবং শ্বা-স-ক-ষ্ট থেকে মুক্তি পেতে কমলালেবু থেকে উপাদানকে কিছু হতে পারে না। তাই এই শীতকালে অবশ্যই যতো বেশি পরিমাণে পাওয়া যায় ততটা বেশি পরিমাণে কমলালেবু খান।

এর পাশাপাশি আরও একটি উপাদান রয়েছে যেটি আপনার শরীরকে সুস্থ স্বাভাবিক করে তুলতে সাহায্য করবে সেটি হল রসুন ।সুস্থ থাকতে রোজ খান এক কোয়া কাঁচা রসুন। সকালে খালি পেটে খেতে হবে এমন নয়৷ বিকেল–দুপুর বা রাতে খেতে পারেন৷ তবে খেতে হবে কাঁচা ।যে সমস্ত হৃদরোগী নিয়মিত রসুন খান, তারা অনেক বেশি অ্যাকটিভ থাকেন । অর্থাৎ রসুন হৃদ রোগ সারিয়ে তুলতে যথেষ্ট উপকারী এর পাশাপাশি যেহেতু রসুনে প্রায় ১০০ টি খনিজ উপাদান রয়েছে এবং তার সাথে সাথে রয়েছে এ-ন্টি-অক্সিডেন্ট তাই ফুসফুসকে সুস্থ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে । এর পাশাপাশি ফুসফুসে যাবতীয় স-ম-স্যা দূরীকরণে রসুনের থেকে উপকারী কোন কিছু নেই।

Check Also

সারা বছর সুস্থ থাকতে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখুন ১-২টি এলাচ

শুধু খাবারের স্বাদ বাড়ানোর জন্য না এলাচের রয়েছে নানা ওষুধি গুণ। সারা বছর প্রতিদিন একটা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *