Breaking News
Home / VIRAL / খাবার খাচ্ছে বাচ্চা ছেলেটি, বাচ্চাকে মে-রে হাত থেকে টেনে কেড়ে খাবার খেয়ে নিলো হনুমান, তারপর? ভাইরাল ভিডিও!

খাবার খাচ্ছে বাচ্চা ছেলেটি, বাচ্চাকে মে-রে হাত থেকে টেনে কেড়ে খাবার খেয়ে নিলো হনুমান, তারপর? ভাইরাল ভিডিও!

উন্নত সভ্যতার হাত ধরে আমরা আরো এগিয়ে চলেছে উন্নতির দিকে এবং এই মুহূর্তে আমাদের ব্যস্ততম জনজীবনে এক গুরুত্ব পূর্ন অঙ্গ হিসাবে পেয়েছি সোশ্যাল মিডিয়া কে । ইতিমধ্যে আমার আজেনে গেছি যে সোশ্যাল মিডিয়া হলো এ যুগের সব থেকে ধা-রা-লো অ-স্ত্র । এবং এই সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার আমাদের মধ্যে প্রত্যেকেই করে থাকে । যেহেতু সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার করে পৃথিবীর আনাচে-কানাচে নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরা যায় তার সাথে সাথে তুলে ধরা যায় নিজেকেও তাই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করতে চাই প্রত্যেকে।

এই সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে এক জনপ্রিয় প্লাটফর্ম হল ফেসবুক । ফেসবুকের মাধ্যমে আমরা প্রতিদিন নিত্যনতুন কিছু কিছু ঘটনা দেখে থাকি যা আমাদের অবাক করে তোলে । এর পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়া শুধুমাত্র যে নিজের প্রতিভাকে সবার সামনে তুলে ধরে এমনটা কিন্তু নয় কখনো কখনো সামাজিক মাধ্যম সামাজিক শিক্ষা ক্ষেত্রে মুক্ত আঙ্গিনা হয়ে ওঠে।

এক পশুরও যে মায়া দয়া রয়েছে মানুষের প্রতি তার একটি ভিডিওর মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি । সম্প্রতি ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখানো হয়েছে একটি ছোট্ট বালক এবং একটি বাঁদরের সম্পর্কের কথা এবং মূলত সেই ভিডিওটি দেখলে আপনি রীতিমত অবাক এবং হ-ত-ভ-ম্ব হবেন । ফেসবুকের ভিডিওতে দেখানো হয়েছে যে একটি বালক এবং একটি বাদর রীতিমতো মনের আনন্দে একে অপরের সাথে খেলাতে মেতে রয়েছেন এবং বালকটি হাতে রয়েছে কিছু খাবারের জিনিস ।

কিন্তু বিষয়টি সহ্য করতে না পেরে সে বালকের হাতে ফিরে খাবারটি ছিনিয়ে নেয় সেই বাঁদর টি । যার ফলে কান্নায় ভেঙে পড়েছে বালকটি । সেই কা-ন্না দেখে পরবর্তীকালে আবার খাবারটি সেই বালকের হাতে ফিরিয়ে দেয় ।এরম ঘটনা সচরাচর দেখা যায় না । তবে সোশ্যাল মিডিয়ার ধরুন আমরা সেই সমস্ত ঘটনা দেখে থাকি যা বিরল থেকে বি-র-ল-তম । মুহূর্তের মধ্যেই ভিডিওটি হয়েছে ভাইরাল । দেখে ফেলেছেন প্রচুর মানুষ । এসেছে প্রচুর মন্তব্য সংখ্যা ।

Check Also

একে অপরের গা জড়িয়ে তুমুল লড়াইয়ে মেতে দুটি বিশাল আকৃতির সাপ, ভাইরাল ভিডিও

ইন্টারনেট এর যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিত্যদিন কিছু না কিছু ভাইরাল হতে দেখা যায়। কখনো কোনো ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *