Breaking News
Home / LIFESTYLE / শ্যাম্পুর খালি প্যাকেট দিয়ে দারুন ভাবে দুর্দান্ত ঘর সাজানোর অসাধারণ আইডিয়া, এভাবেও সম্ভব?

শ্যাম্পুর খালি প্যাকেট দিয়ে দারুন ভাবে দুর্দান্ত ঘর সাজানোর অসাধারণ আইডিয়া, এভাবেও সম্ভব?

শরীর সুস্থ এবং সচেতন রাখার জন্য আমরা প্রত্যেকেই করে চলি নিরন্তন পরিশ্রম এবং এই শরীর সুস্থ স্বাভাবিক রাখার মধ্যে অন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো মাথা চুলকে বা মাথার ত্বককে পরিষ্কার রাখা । এই মাথার চুল বা ত্বককে পরিষ্কার রাখার জন্য আমরা শ্যাম্পুর ব্যবহার করে থাকি । বাজারে বিভিন্ন ধরনের নামিদামি শ্যাম্পু আছে তার পাশাপাশি এখন এসেছে কন্ডিশনার যা চুলকে আরো ম-সৃ-ণ এবং সিল্কি বানায়।

কিন্তু এই শ্যাম্পুর প্যাকেট গু-লি সাধারণত প্লাস্টিকের হয়ে থাকে । আর আমরা জানি প্লাস্টিক পরিবেশের পক্ষে কতটা ক্ষ-তি করতে পারে । কারণ বছরের পর বছর ধরে যুগের পর যুগ ধরে প্লাস্টিক অবিকৃত অবস্থায় থেকে যেতে পারে । সবকিছু ধ্বং-স হলেও প্লাস্টিকের ধ্বং-স হয় না । জমে থাকা প্লাস্টিক নিয়ে আগামী দিনে বিভিন্ন প্রকল্পের চেষ্টাচরিত্র চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞরা ।

তবে আপনি নিজেও বাড়িতে কিছু একটি করে করতে পারেন এই প্লাস্টিক থেকে। ইতিমধ্যে নিশ্চয়ই আপনার মনে প্রশ্ন জেগেছে যে শ্যাম্পুর প্লাস্টিক তো সাধারণত ব্যবহার করে ফেলে দেওয়া হয় । এগুলো নিয়ে কিআর কাজকর্ম করা যেতে পারে ? তবে অবশ্যই আমার মতে প্লাস্টিক গুলো বাইরে ফেলে পরিবেশের ক্ষ-তি না করে বাড়ি সাজানোর ক্ষেত্রে এক অসম্ভব সুন্দর ভাবে কাজে লাগতে পারে এ-গু-লি-কে ।

কিভাবে? সমস্ত কিছু বিস্তারিতভাবে জানাবো আপনাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে। শ্যাম্পুর পাতা গু-লি-কে ছোট ছোট টুকরো অংশে কেটে নিন । এরপর চোখের আকৃতি করে আর্ট পেপার গু-লি-কে কেটে নিন । এবং মাঝখানে কিছুটা পরিমাণ ছিদ্র করে দিন । এবার শ্যামপুর পাতা গু-লি-কে আর্ট পেপারের মধ্যে আঠা দিয়ে লাগিয়ে দিন ।

এমতাবস্থায় একটি গোলাকৃতির পিচবোর্ডের টুকরো নিয়ে তার মধ্যে সমস্ত শ্যামপুর পাতা-গু-লি যে-গু-লি আপনি আট পেপারের সাথে লাগিয়ে রেখে ছিলেন সে-গু-লি ওই গোল পিজবোর্ড এর সাথে যুক্ত করে দিন এবং জুড়ে দেন ।এরপর একটি নিজের হাতে বানানো কাগজের ফ্রেমে জুড়ে দিন সেটিকে । তাহলে দেখবেন কি সুন্দরভাবে একটি সূর্যমুখী ফুলের গঠন আপনি নিমিষেই করে তৈরি করে ফেলেছেন শুধুমাত্র শ্যাম্পুর পাতা ব্যবহার করে।

Check Also

রা’ন্না ছাড়াও মাইক্রোওভেন দিয়ে এই কাজ গুলো ক’রতে পারেন যা আগে কখনই করেন নি!

মাইক্রোওভেন এখন প্রায় প্রতিটি মধ্যবিত্ত পরিবারেই সামিল৷ খাবার গরম ক’রতে মাইক্রোওভেনের ব্যবহার আম’রা সবাই জানি৷ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *