Breaking News
Home / LIFESTYLE / শুধুমাত্র দুধের সর থেকে দারুন কায়দায় এই পদ্ধতিতে খুব সহজে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন খাঁটি গাওয়া ঘি, যার স্বাদ হবে দুর্দান্ত!

শুধুমাত্র দুধের সর থেকে দারুন কায়দায় এই পদ্ধতিতে খুব সহজে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন খাঁটি গাওয়া ঘি, যার স্বাদ হবে দুর্দান্ত!

আমরা অনেকেই খাদ্য রসিক হয়ে থাকি । তার পাশাপাশি খাবারের সাথে এমন বেশ কিছু জিনিস আমরা যোগ করে থাকি যা বাজারে অত্যন্ত দামী। যেমন ধরুন ঘি। । আজকালকার দিনে গাওয়া ঘি পাওয়া খুব দুঃ-সা-ধ্য ব্যাপার। ভেজাল জিনিসে ভরে গেছে আমাদের চারিপাশে। সেই মতো খাঁটি ঘি পাওয়া সত্যিই কঠিন ব্যাপার । কিন্তু আপনি যদি বাড়িতে ঘি বানান তাহলে সেই ঘি হবে একদম খাঁটি এবং শুদ্ধ । আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে যে বাড়িতে কিভাবে বানাবেন ঘি? জানাবো আপনাদের ।

ঘি বানানো এমন কোনো বড় কঠিন কাজ নয়। শুধুমাত্র বেশ কয়েকটি নিয়ম অনুসরণ করলে আপনি সহজে বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারবেন খাঁটি ঘি । প্রথমেই বলে রাখি ঘি বানানোর জন্য আপনাকে অনেকটা পরিমাণ খাঁটি গরুর দুধের সর আলাদা পাত্রে তুলে রাখতে হবে । মোটামুটি এক সপ্তাহের সর যদি আপনি আলাদা পাত্রে তুলে রাখেন তাহলে সেই পরিমাণ সর থেকে ঘি তৈরি করা সম্ভব । এবার আসুন জেনেনি সেই পদ্ধতি-গু-লি ।

প্রথমে আপনাকে ওই এক সপ্তাহের সর একটি আলাদা পাত্রে নিতে হবে এবং হাত দিয়ে সেটিকে ভাল করে মেখে নিতে হবে । এমন ভাবে মাখতে হবে যাতে সেটি ক্রিমের আকার ধারণ করে । এবং এই মিশ্রণটি সম্পন্ন হয়েছে কিনা সেটি জানার জন্য আলাদা একটি পাত্রে জল নিন । এবং তাতে সামান্য পরিমাণ এই মিশ্রণটি ফেলে দেখুন যে জলের মধ্যে সেটি ভেসে উঠছে কিনা । যদি ভেসে ওঠে তাহলে মিশ্রণ সম্পন্ন হয়েছে । যদি না উঠে তাহলে আরো বেশ কিছুক্ষন নাড়তে থাকুন । এরপর গ্যাসের মধ্যে একটি কড়াই বসিয়ে দিন।

তার মধ্যে দিয়ে দিন সেই মিশ্রণটি। বেশ কিছুক্ষণ মোটামুটি ২০ থেকে ২৫ মিনিট জ্বাল দেওয়ার পর আপনি লক্ষ্য করবেন যে ঘি সম্পূর্ণ রকম ভাবে গলে গিয়ে লালচে আকারের একটি রূপ ধারণ করেছে। অর্থাৎ আপনি তখন বুঝতে পারবেন যে ঘি তৈরি করা সম্পূর্ণ হয়েছে। এরপর সেটিকে ঠান্ডা হতে দেবেন এবং ঠাণ্ডা হয়ে গেলে লালচে ছোট ছোট ঘি এর অংশ-গু-লি নিচে তলিয়ে যাবে এবং উপরে ভেসে উঠবে সেই ঘি । সেটিকে অন্য একটি পাত্রে আপনি ধরে রাখতে পারেন । এভাবেই তৈরি করা যায় বাড়িতে খাঁটি ঘি ।

Check Also

রা’ন্না ছাড়াও মাইক্রোওভেন দিয়ে এই কাজ গুলো ক’রতে পারেন যা আগে কখনই করেন নি!

মাইক্রোওভেন এখন প্রায় প্রতিটি মধ্যবিত্ত পরিবারেই সামিল৷ খাবার গরম ক’রতে মাইক্রোওভেনের ব্যবহার আম’রা সবাই জানি৷ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *