Breaking News
Home / LIFESTYLE / WhatsApp-এ হুমকি ফোনে জেরবার? কী ভাবে রেকর্ড করবেন, জানুন…

WhatsApp-এ হুমকি ফোনে জেরবার? কী ভাবে রেকর্ড করবেন, জানুন…

ইনস্ট্যান্ট মেসেজিংয়ের কথা বললে, প্রথমেই সবার মাথায় আসে WhatsApp-এর নাম। ঘরোয়া আড্ডা হোক আর হোক সে অফিশিয়াল জরুরি মিটিং, টেক্সট মেসেজের অন্য কোনও প্ল্যাটফর্ম খুঁজে পাওয়া দায়! তবে শুধুই টেক্সট মেসেজ নয়। WhatsApp-এ অডিও এবং ভিডিয়ো দুরকমের কলিংই সম্ভব। অনেকে আবার নর্মাল ফোন কলে আড়ি পাতার ভয়ে WhatsApp কল-কেই প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তাঁদের জেনে রাখা উচিত, WhatsApp-এর অডিও কলও রেকর্ড করা সম্ভব খুব সহজেই। কী ভাবে, জেনে নিন।

প্রথম পদ্ধতি: কী ভাবে অন্য ডিভাইস ব্যবহার করে WhatsApp অডিও কল রেকর্ড করবেন –

খুব সহজ একটা সমাধান রয়েছে। আপনার ফোনের স্পিকার অপশন অন করে রাখুন এবং অন্য আর একটি ফোন ব্যবহার করে WhatsApp কল রেকর্ড করুন। যদি দ্বিতীয় হ্যান্ডসেটে কোনও রেকর্ডার না থেকে থাকে, তাহলে Play Store থেকে একটি থার্ড পার্টি অ্যাপ ডাউনলোড করে নিন। আপনি চাইলে ‘Voice Recorder’ অ্যাপও ডাউনলোড করতে পারেন।

এছাড়াও সেই অডিও কলের কোনও অংশ মিস না করতে বা নোট নিতে চাইলে সেকেন্ডারি কোনও ডিভাইস, মোবাইল বা ল্যাপটপ থেকে Otter.ai ডাউনলোড করতে পারেন। এই অ্যাপের সাহায্যে রিয়েল টাইমেই অটোমেটিক ট্রান্সক্রিপশন করতে পারবেন। কী ভাবে? WhatsApp-এ কোনও কল এলে সঙ্গে-সঙ্গে ‘record’ বাটনে ক্লিক করুন।

সেই অ্যাপটিও তৎক্ষণাত সেই ভয়েস কল রেকর্ড করা শুরু করে দেবে। তবে এই অ্যাপের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ দিক হল, ট্রান্সক্রাইবড টেক্সটের সাহায্যে আপনি রেকর্ডিং এবং অডিও দুটোই একসঙ্গে প্লে করতে পারবেন। খুব সহজ ভাবে বলতে গেলে, আপনি একদিকে যেমন ভয়েস কল রেকর্ডিং পাচ্ছেন, আর এক দিকে ঠিক তেমনই আবার তার টেক্সট ভার্সনও পাচ্ছেন। তবে জেনে রাখা ভালো, কেবল ইংরেজি ভাষাই উপলব্ধ এই অ্যাপে। পাশাপাশিই প্রত্যেক মাসে ভয়েস কল রেকর্ড করার জন্য মোট 600 মিনিট পাবেন।

দ্বিতীয় পদ্ধতি:যে ফোনে WhatsApp অডিও কল করছেন, সেই ফোনেই কী ভাবে রেকর্ড করবেন –

WhatsApp অডিও কল রেকর্ড করার জন্য Google Play Store-এ একাধিক অ্যাপ রয়েছে। তাদের মধ্যে কিছু কাজ করে আবার কিছু করে না। এর মধ্যে বেশ কিছু অ্যাপ আমরা পরীক্ষা করে দেখেছি। তবে সেরাটা হল ‘Record WhatsApp calls’ অ্যাপ। Google Play Store থেকেই অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে।

এতে খুব সহজ UI রয়েছে এবং এক লহমায় আপনি কোনও WhatsApp ভয়েস কল রেকর্ড করতে পারবেন। এই অ্যাপ অটোমেটিক্যালি আপনার WhatsApp কল রেকর্ড করবে এবং পরবর্তীতে আপনি চাইলেই সেই অডিও ফাইল Google Drive-এ আপলোডও করতে পারবেন। আর সেই সব রেকর্ডিংসের অ্যাকসেস পেতে আপনাকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা পিন লক করে রাখতে হবে। আসুন জেনে নেওয়া যাক, কী ভাবে ‘Record WhatsApp calls’ ব্যবহার করা যায় :-

* প্রথমেই Google Play Store খুলে সেখান থেকে ‘Record WhatsApp calls’ অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।

* এরপরই আপনার কাছ থেকে কলস, কন্ট্যাক্টস, স্টোরেজ, মাইক্রোফোন এবং অন্যান্য আরও বেশ কয়েকটি জিনিসের অ্যাকসেসের অনুমতি চাওয়া হবে। আপনাকে জাস্ট স্ক্রিনের দিকে লক্ষ্য রেখে ধাপে ধাপে প্রত্যেকটি নির্দেশ পালন করতে হবে।

* অ্যাপটি খোলার সঙ্গে-সঙ্গেই আপনাকে সেটিংস থেকে ‘Notification’ এবং ‘Accessibility’ অপশন দুটি চালু করে নিতে হবে। এই দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অ্যাপে নিশ্চিত করতে পারলেই আপনি এবার WhatsApp কল রেকর্ড করতে পারবেন। এবার আপনি যখনই কোনও WhatsApp কল করবেন আপনাআপনিই সেই কল রেকর্ড করবে এই অ্যাপ। যতক্ষণ খুশি কথা বলুন, ততক্ষণই সেই WhatsApp কল রেকর্ড করবে এই অসাধারণ অ্যাপ। অর্থাৎ এতে রেকর্ডিংয়ের সময়সীমার কোনও বাঁধন নেই। আর সেই রেকর্ডিং আপনি যখন খুশি চালিয়ে শুনতে পারেন।

ওয়ার্নিং – WhatsApp আসলে একটি end-to-end মেসেজিং সার্ভিস। তাই অন্য অ্যাপকে যখন এর রেকর্ডিং সংক্রান্ত বিষয় শোনার অনুমতি দিচ্ছেন, তথন রিস্ক তো থাকবেই। কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপ যখন WhatsApp কল রেকর্ড করছে, তখন সেই অ্যাপ থেকে খুব বেশি পরিমাণেই সতর্ক থাকতে হবে। আর সেই অ্যাপকে নিজের বিভিন্ন ব্যক্তিগত তথ্য অ্যাকসেস দেওয়ার আগে দু’বার ভাবতে হবে।

Check Also

রান্নাঘরে এই ১০ জিনিস থাকলে এখনই ফেলে দিন

রান্নাঘর, যে কোনও বাড়ির অন্যতম গু’রুত্ব পূর্ণ একটি স্থান। কারণ রান্নাঘর যেমন আমাদের খাবারের যোগান ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *