Breaking News
Home / VIRAL / মা দিচ্ছেন পরীক্ষা আর নারী পুলিশের কোলে শিশু সন্তান; ভাইরাল সোশাল মিডিয়াতে

মা দিচ্ছেন পরীক্ষা আর নারী পুলিশের কোলে শিশু সন্তান; ভাইরাল সোশাল মিডিয়াতে

মা দিচ্ছেন পরীক্ষা আর নারী পুলিশের কোলে – এই ছবিটি ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। দুই নারী পুলিশ দুটি শিশুকে কোলে নিয়ে মহা আনন্দে ঘুরছেন। ছবিটির দেখা মেলে আসাম পুলিশের ভেরিফাইড টুইটার একাউন্টে। ছবিটি টু্ইটারে আপলোড করার সাথে সাথে ভাইরাল হওয়া শুরু হয়।

সেই সাথে নেটিজেনদের প্রশংসায় ভাসছে রিটুইট (কমেন্ট)! বরাবরই আমরা পুলিশকে খুব একটা ভালো চোখে দেখি না। তাদের প্রতি আমাদের কমবেশি একটা বাজে ধারণা কাজ করে। তবে জানেন কি হাতে পাঁচ আঙ্গুল সমান হয় না। তেমনই সকল পুলিশই খারাপ নয়। সমাজের প্রতিটা স্থানে আপনি খারাপের মাঝে ভালো মানুষও পাবেন। তার প্রমাণ এই ছবিটি।

গত রোববার আসাম টিচার্স এলিজিবিলিটি টেস্ট (টেট) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানকার একটি পরীক্ষাকেন্দ্রে টিউটি পরে দুই নারী পুলিশ এর। যেসব পরীক্ষার্থী পরীক্ষাতে অংশ নিতে আসেন তাদের মধ্যে দু জানের দুটি ছোট শিশু ছিল। শিশু দুটির মা হয়ত সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে তারা সন্তান কোলে নিয়েই পরীক্ষা দিবেন। কিন্তু যখন পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে দায়িত্বরত ওই দুই নারী পুলিশ তাদের দেখতে পান।

এরপর ওই দুই নারী পুলিশ এসে তাদের সাথে কথা বলে জানতে পারেন তাদের সাথে আর কেউ নেই। তাই তারা শিশুদের নিয়েই পরীক্ষার হলে প্রবেশ করে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন। তখন নারী পুলিশ দুজন তাদের সন্তানদের দেকে রাখবে বলে আশ্বাস প্রদান করে। শিশু সন্তান দুটিকে নিজেদের কোলে তুলে নেন। আর সন্তানের মায়েরা নির্বিঘ্নে পরীক্ষা দেন।

এরপর সেই ছবি পরে টুইটারে পোস্ট করে দেন আসাম পুলিশ। সেই দুই নারী পুলিশ এর প্রসংশায় ভাসছে পুরো টুইটার কমেন্ট বক্স। এমন মহৎ কাজের জন্য তাদের প্রশংসা করেন আসাম পুলিশের প্রধানও। তবে ব্যক্তিগত প্রাইভ্যাসির কারনে তাদের ওই দুই মায়ের নাম বা ছবি কোনটাই প্রকাশ করা সম্ভব হয় নি।

ওই দুই নারী পুলিশ কর্মী আনন্দের সাথে শিশু দু’টিকে কোলে নিয়ে পরীক্ষা সেন্টার এর মাঠে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে তাদের মধ্যে কোন বিরক্তির লক্ষন প্রকাশ পায়নি। বরং তারা এমন একটা কাজের সুযোগ পেয়ে খুবই আনন্দিত মনে দেখে। সত্যি বলতে কি সব পুলিশই খারাপ নয়; এখনও ভালো মানুষ আছে বলে আমাদের সমাজটা টিকে আছে।

Check Also

কাজের টাকা না দেয়ায় মালিকের পৌনে ৬ কোটির বাড়ি গুঁড়িয়ে দিলেন মিস্ত্রি

বাড়ি তৈরির কাজ করিয়েও পুরো টাকা না দেওয়ায় শাস্তি পেলেন জে কুর্জি নামের এক বাড়িওয়ালা। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *