Breaking News
Home / NEWS / দেশজুড়ে খালি চোখে দেখা মিলবে মহাজাগতিক দৃশ্য ধূমকেতুর

দেশজুড়ে খালি চোখে দেখা মিলবে মহাজাগতিক দৃশ্য ধূমকেতুর

আগামীকাল থেকেই মহাজাগতিক ও বিরল দৃশ্যের সাক্ষী হতে চলেছে পৃথিবী। ক্রমশ পৃথিবীর দিকে এগিয়ে আসছে উজ্জ্বল ধূমকেতু নিওওয়াইস। শুধু সোমবার রাতের অপেক্ষা, তারপর আগামীকাল থেকেই খালি চোখে টানা ২০ দিন এই ধূমকেতুকে দেখা যাবে। টেলিস্কোপে প্রথম এই ধূমকেতুর অস্তিত্ব ধরা পড়ে ২৭শে মার্চ। এরপর আগামীকাল অর্থাৎ ১৪ জুলাই থেকে একই জায়গায় টানা ২০ দিন দেখা যাবে এই ধূমকেতুকে। বিশ্বের বিভিন্ন জায়গার পাশাপাশি ভারতের বিভিন্ন এলাকা থেকে এই ধূমকেতুর দেখা মিলবে।

মহাকাশ বিজ্ঞানীদের দাবি, ৬৮০০ বছর পর এই ধূমকেতুর দেখা মিলতে চলেছে। ভুবনেশ্বরের পাঠানি সামন্ত প্ল্যানেটারিয়ামের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতসহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা থেকে টানা ২০ দিন এই ধূমকেতুকে সূর্যাস্তের পর দেখা যাবে উত্তর পশ্চিম আকাশে ২০ মিনিট পর্যন্ত। প্রতিদিন একই জায়গাতেই দেখা যাবে এই ধূমকেতুকে।

জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা এই ধূমকেতুর নাম দিয়েছেন সি/২০২০ এফ৩। বিজ্ঞানীদের মত, প্রচন্ড গতিতে এই ধুমকেতু এগিয়ে আসছে পৃথিবীর। সাধারণত ধুমকেতু দেখার জন্য দূরবীক্ষণের প্রয়োজন হয়, তবে এই ধুমকেতু দেখার ক্ষেত্রে কোনরকম দূরবীক্ষণ ছাড়াই খালি চোখে দেখা যাবে। ১লা জুলাই থেকে এই ধূমকেতুকে দেখা যাচ্ছিল, তবে তা উত্তর পূর্ব আকাশে সূর্যোদয়ের আগে। আর এবার ১৪ জুলাই থেকে দেখা যাবে সূর্যাস্তের পর।

এই ধূমকেতু ২২শে জুলাই পৃথিবীর সবথেকে কাছাকাছি থাকবে। যেদিন পৃথিবী থেকে এর দূরত্ব থাকবে ১০ কোটি ৩৫ লক্ষ কিলোমিটার। এর আগেও ১৯৯৭ সালে পশ্চিমবঙ্গ ও কলকাতা থেকে হেলবোপ নামে আরও একটি ধূমকেতুর দেখা মিলেছিল। যদিও পরেও কিছু ধূমকেতু দেখা গিয়েছে কিন্তু তা দেখতে হয়েছে দূরবীক্ষণ যন্ত্রের মাধ্যমে। আর এবার এত বছর পর খালি চোখে নিওওয়াইস ধূমকেতুর দেখা মিলবে।

ধুমকেতু আসলে কি?

ধুমকেতু সৌরজগতের বহির্ভাগের এক সদস্য। ধুমকেতুর মধ্যে তাপমাত্রা ভীষণ কম থাকে। যেখানে বড় বড় বরফের চাঙর ঘুরে বেড়ায়। যে চাঙরগুলি জলীয় বরফ, কার্বন ডাই অক্সাইড বরফ, মিথেন বরফ। এই চাঙরগুলি আয়তন ৫ থেকে ১২ কিলোমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। আর এই চাঙরগুলি যখন সূর্যের আকর্ষণে সূর্যের চারিদিকের উপবৃত্তাকার পথের দিকে ঘুরে যায় তখন সূর্যের তাপে এই বরফের চাঙরগুলি বাষ্পীভূত হতে শুরু করে। আর সেই বরফের বাষ্প কোটি কোটি কিলোমিটার দূরে লম্বা ঝাঁটার মতো দেখতে লেজের সৃষ্টি করে। যাকেই ধুমকেতু বলা হয়।

Check Also

রাজ্যজুড়ে ভারি থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! আবাহাওয় দফতরের সর্তকতা জারি

রাজ্যজুড়ে ভারি থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস! আবাহাওয় দফতরের সর্তকতা জারি- উত্তর প্রদেশের উপরে থাকা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *