Breaking News
Home / NEWS / ধেয়ে আসছে ধূমকেতু, যেদিন দেখা মিলবে এই ধূমকেতুর

ধেয়ে আসছে ধূমকেতু, যেদিন দেখা মিলবে এই ধূমকেতুর

গত মাসেই দেখা গিয়েছে সূর্যগ্রহণ। এবার আকাশে হাজির নতুন অ’তিথি। আগামী বুধবার থেকে দেখা মিলবে ধূমকেতুর। C/2020 F3 বা নিওওয়াস নামে এই ধূমকেতুটি আবিষ্কার হয়েছে মাত্র মা’র্চ মাসে। ইতিমধ্যে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে ফের যাত্রা শুরু করেছে অনন্তের পথে। এবার গেলে ফিরবে আবার ৬,৮০০ বছর পর।

বর্তমানে সূর্যের সঙ্গে দিগন্তরেখা বরাবর প্রায় সরলরেখায় অবস্থান করছে ধূমকেতুটি। ফলে কোনও অবস্থাতেই সেটিকে দেখা সম্ভব নয়। ১৫ জুলাইয়ের পর ধূমকেতুটি ধীরে ধীরে সরবে পশ্চিম আকাশে ফলে সূর্যাস্তের পর উত্তর-পশ্চিম আকাশে খালি চোখে বা বায়নোকোলার দিয়ে দেখা যাবে একে।

আগামী ২২ জুলাই পৃথিবী থেকে প্রায় ১০ কোটি কিলোমিটার দূর দিয়ে যাবে C/2020 F3 NEOWISE। তার আগে এই ধূমকেতুর ঔজ্জ্বল্য সব থেকে বেশি থাকবে।

ধূমকেতু দর্শনে ভিলেন হতে পারে বর্ষার মেঘ। তবে সঠিক অবস্থান চিহ্নিত করে অ’পেক্ষা করলে সাধ মিটতে পারে।

মৃত্যু মুখে দাঁড়িয়ে শেষ বারের মতন ভিডিওতে বললেন, মা তোমাকে খুব ভালোবাসি #ফেসবুকে ভিডিও ভাইরাল

ক্যামেরার সামনে একটি মুখ। সেই মুখটি মাটিতে থুবড়ে পড়ে রয়েছে। জঙ্গলের মাটি গাছের পাতা ও বিভিন্ন লতায় মোড়ানো। ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে ছলছলে চোখে সেই মুখটি বলছে, আমরা ছত্তিশগড়ের দান্তেওয়াড়ায় নির্বাচন কভার করার জন্য এসেছিলাম। এখন জঙ্গলে। আমাদের সঙ্গে কয়েকজন সেনা ছিল।

‘আচমকাই চারপাশ থেকে ঘিরে ফেলল মাওবাদীরা। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ভয়াবহ গোলাগুলি শুরু হলো। আমি মনে হয় বাঁচব না আর। বাঁচার সম্ভাবনা আর নেই বললেই চলে। মৃত্যু একদম কাছে এসে দাঁড়িয়েছে আমার। তবুও কেন জানি একটুও ভয় লাগছে না।’

‘মা, এই ভিডিওটা আমি তোমার জন্য বানিয়ে রাখলাম। আমি হয়তো বাঁচব না আর। তবু একটা কথা বলতে চাই, আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি মা। খুবই। আমি তোমাকে খুব মিস করব…।’

চারপাশ থেকে গুলির শব্দ আসছে মুহুর্মুহু। এর মধ্যেই এভাবে একটি ভিডিও মঙ্গলবার ভারতের দান্তেওয়াড়ার জঙ্গলে শুয়ে রেকর্ড করেছিলেন দেশটির সংবাদমাধ্যম দূরদর্শনের এক কর্মচারী। নাম মরমুকুট শর্মা। দান্তেওয়াড়ার নির্বাচনের জন্য ওই অঞ্চলে গিয়েছিলেন পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে।

মরমুকুট শর্মা শেষ পর্যন্ত বেঁচে গেলেও প্রাণ হারিয়েছেন তার সিনিয়র ক্যামেরাম্যান অচ্যুত নন্দ সাহু। প্রায় এক ঘণ্টা ধরে সেনা ও মাওবাদীদের মধ্যে গোলাগুলি চলে। আর এতেই প্রাণ যায় সাহুর। এনডিটিভি।

Check Also

১ দিনের শিশুকন্যাকে ফেলে গেল বাবা-মা, কান্না শুনে আগলে রাখল রাস্তার কুকুর

একবিংশ শতাব্দিতে দাঁড়িয়েও কন্যা সন্তানের প্রতি অনীহার ছবিটা যেন বদলাচ্ছে না। চতুর্থীর সন্ধে, দুর্গাপুজোর শেষ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *