Breaking News
Home / INSPIRATION / ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স অকাডেমিতে শীর্ষস্থান পেয়েছে মেয়ে, মেয়েকে টিভিতে দেখে পলক পড়ছে না চা বিক্রেতা বাবার

ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স অকাডেমিতে শীর্ষস্থান পেয়েছে মেয়ে, মেয়েকে টিভিতে দেখে পলক পড়ছে না চা বিক্রেতা বাবার

মধ্য প্রদেশের নিমুচের একটি বাসস্ট্যান্ডে চায়ের দোকানের চালান বাবা। কিন্তু নিজের আর্থিক টানাটানির কোনও প্রভাব মেয়ের স্বপ্ন ও শিক্ষার আকাঙ্খা পূরণে পড়তে দেননি বাবা সুরেশ গানওয়াল।

সেই মেয়েকে টিভিতে দেখে চোখের পলক ফেলতে পারছিলেন না বাবা। যিনি নিজে একটি চা দোকানের মালিক। এটিই যেন জীবনের সবচেয়ে গর্বের মুহুর্ত। শনিবার ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স অকাডেমি থেকে স্নাতক ফ্লাইং অফিসার অঞ্চল গানওয়াল রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে পদক পেলেন।

অঞ্চল ডুন্ডিগলে ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স অকাডেমিতে শীর্ষস্থান অধিকার করেছেন তিনি। সমস্ত প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে এয়ার ফোর্স অকাডেমিতে নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন অঞ্চল। করোনাভাইরাস অতিমারির কারণে অঞ্চলের বাবা-মা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি।

সরকারি ডিগ্রি কলেজ থেকে কম্পিউটার সায়েন্সের স্নাতক অঞ্চল, সাব-ইন্সপেক্টর হিসেবে মধ্যপ্রদেশে পুলিশ বিভাগে যোগ দিয়েছিলেন। পরে সেটা তিনি ছেড়ে দিয়েছিলেন। অঞ্চল বলেছেন, বাহিনীতে যোগদানের আগে আমি সেখানে আট মাস কাজ করেছিলাম।

২০১৩-তে উত্তরাখণ্ডের বন্যায় ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর কাজ দেখেই তিনি বাহিনীতে যোগ দিতে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন অঞ্চল। শনিবার কম্বাইন্ড গ্র্যাজুয়েশন প্যারাডে অঞ্চলকে রাষ্ট্রপতির পুরুষ্কার দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে ১২৩ ফ্লাইট ক্যাডেটের ভারতীয় বায়ুসেনায় অফিসার হিসেবে নিযুক্তি হয় অঞ্চল।

Check Also

অঙ্কে ফেল করেও সফল IAS অফিসার, অনুপ্রেরণার নাম সইদ রিয়াজ আহমদ

জীবনে সাফল্য লাভের পথটি কখনোই মসৃন হয় না। অনেক প্রতিবন্ধকতা আসে সে পথে। কিন্তু লক্ষ্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *