Breaking News
Home / VIRAL / ভারতীয় সেনাদের সেবায় সুশান্ত, ভিডিও ভাইরাল!

ভারতীয় সেনাদের সেবায় সুশান্ত, ভিডিও ভাইরাল!

বলিউডের উঠতি অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত আর এই জগতে নেই। কিন্তু তিনি না থাকলেও তাঁর প্রতিভা এবং তাঁর বেশ কিছু কর্মকাণ্ডের ক্যামেরাবন্দি ছবি আজও রয়ে গেছে এ জগতে। আর সেই সকল ছবি তাঁর পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়ার পর ধাপে ধাপে ফুটে উঠছে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে। দুদিন আগেই আমরা এই তারকার বিরল প্রতিভা দুই হাতে লেখার ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ভিডিও দেখেছিলাম সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এদিন আবারও একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যাতে দেখা যাচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুত নিজের হাতে খাবার পরিবেশন করছেন ভারতীয় সেনাদের, ভারতীয় সেনাদের সেবায় নিয়োজিত সুশান্ত।

সুশান্ত সিং রাজপুত ১৪ই জুন হঠাৎ করে তাঁর চরম সিদ্ধান্তে পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়ার পর থেকেই বলিউড নিয়ে নানান অভিযোগ উঠতে শুরু করে। সুশান্ত সিং রাজপুতের পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়ার পর দিনই আরও একটি ঘটনা ঘটে যা হলো ভারত-চীন সীমান্তে ভারত ও চীন সেনাদের মধ্যে সংঘাত। যে সংঘাতে দেশের ২০ জন বীর জওয়ান শহীদ হন। আর তারপর থেকেই দেশের ট্রেন্ডিং টপিক হয়ে ওঠে সুশান্ত সিং রাজপুত এবং ভারতীয় সেনা। অবশেষে এই দুই ট্রেন্ডিং টপিককে এক ছাদের তলায় দেখা গেল সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে।

সদ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে তাতে দেখা গিয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুত সেনার পোশাক পড়ে ভারতীয় সেনাদের সাথে রয়েছেন। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তিনি ভারতীয় সেনাদের নিজের হাতে খাবার পরিবেশন করছেন। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, যেদিন এই ভিডিওটি ক্যামেরাবন্দি করা হয়েছিল সেদিন নাকি সুশান্ত সিং রাজপুত নিজের হাতে রান্না করে ভারতীয় জওয়ানদের খাবার পরিবেশন করেছিলেন।

b0llyxans নামক একটি ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটি শেয়ার করার পাশাপাশি বলা হয়েছে, “যারা (ভারতীয় সেনা) আমাদের দেশের সুরক্ষায় মোতায়েন রয়েছেন তাদের সেবায় নিয়োজিত আমাদের সুশান্ত।” আর এই ভিডিও দেখেই বোঝা যায়, কতটা মাটির মানুষ ছিলেন সুশান্ত। ভিডিওটি একদিন আগে আপলোড করার পর ইতিমধ্যেই দেশের প্রায় লাখ খানেক মানুষ ভিডিওটি ইতিমধ্যেই দেখে ফেলেছেন।

Check Also

কাজের টাকা না দেয়ায় মালিকের পৌনে ৬ কোটির বাড়ি গুঁড়িয়ে দিলেন মিস্ত্রি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *