Breaking News
Home / INSPIRATION / সাইকেল কেনার জন্য ভাঁড়ে জমানো টাকাও রিলিফ ফান্ডে তুলে দিল পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র

সাইকেল কেনার জন্য ভাঁড়ে জমানো টাকাও রিলিফ ফান্ডে তুলে দিল পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র

সাইকেল কেনার জন্য ভাঁড়ে জমানো টাকা এমারজেন্সি রিলিফ ফান্ডে তুলে দিল গলসীর বাসিন্দা পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্র।

করোনা উদ্ভুত পরিস্থিতিতে মোকাবিলা করার জন্য সরকার একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে। একইসঙ্গে ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট এমারজেন্সি রিলিফ ফান্ডেও সাধারণ মানুষকে অর্থ সাহায্যের জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আবেদন জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই তহবিলে ব্যক্তিগত এবং প্রতিষ্ঠানগত ভাবে সামর্থ্য অনুযায়ী অনেকেই অর্থও প্রদান করছেন। অনেকেই সরাসরি রাজ্য সরকারের নির্দিষ্ট করে দেওয়া অ্যাকাউন্টে এই টাকা পাঠাচ্ছেন, আবার অনেকেই এই অনুদানের চেক তুলে দিচ্ছেন জেলাশাসকের হাতে।

শুক্রবার গলসী ১ নম্বর ব্লকের লোহা সন্তোষপুরের বাসিন্দা পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র শিবম চ্যাটার্জ্জী সাইকেল কেনার জন্য দুটি ভাঁড়ে জমান অর্থ জেলাশাসকের হাতে তুলে দেয় ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট এমারজেন্সি রিলিফ ফান্ডে প্রদানের জন্য। এদিন শিবম চ্যটার্জীর সাথে উপস্থিত ছিলেন তার বাবা হিমাদ্রী চ্যাটার্জী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, পূর্ব বর্ধমান জেলাপরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া।

হিমাদ্রী চ্যাটার্জী এদিন নিজেও আলাদা ভাবে ১৫ হাজার টাকার চেক জেলাশাসকের হাতে তুলে দেন ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট এমারজেন্সি রিলিফ ফান্ডে প্রদানের জন্য।

এছাড়া, এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলা আই.সি.ডি.এস.-এর ৭টি প্রজেক্টর কর্মী ও সহায়িকারা ২ লক্ষ ৮৬ হাজার ৬৫০ টাকার চেক তুলে দিলেন এমারজেন্সি রিলিফ ফান্ডে। পাশাপাশি, এক শিক্ষিকা সর্বাণী রায় ব্যক্তিগতভাবে ১০ হাজার টাকা এবং স্বনিযুক্তি প্রকল্পের পঞ্চায়েত সুপারভাইজারদের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকার চেক তুলে দেওয়া হয় জেলাশাসকের হাতে।

Check Also

অঙ্কে ফেল করেও সফল IAS অফিসার, অনুপ্রেরণার নাম সইদ রিয়াজ আহমদ

জীবনে সাফল্য লাভের পথটি কখনোই মসৃন হয় না। অনেক প্রতিবন্ধকতা আসে সে পথে। কিন্তু লক্ষ্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *