Breaking News
Home / NEWS / ‘সুপার পিঙ্ক মুন’: লকডাউনে মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী হতে তৈরি থাকুন

‘সুপার পিঙ্ক মুন’: লকডাউনে মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী হতে তৈরি থাকুন

আকাশে ২০২০-এর উজ্জ্বল গোলাপি চাঁদ। সুপারমুন হিসেবে নিজেকে তৈরি করছে পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ। ৭ এপ্রিল দেখা যেতে পারে সুপার মুন।

চলতি বছরে বসন্তের মরসুমে প্রথম পূর্ণিমাতেই আকাশে দেখা মিলবে সুপার মুনের। উজ্বল গোলাপি চাঁদ। চাঁদ দেখতে যারা ভালোবাসেন, তাদের জন্য এই সুপারমুন একটু বিশেষ। চলতি বছরের উজ্জ্বলতম এবং বৃহত্তম পূর্ণিমা হতে চলেছে এইটি। এপ্রিলের এই সুপারমুনকে ডাকা হচ্ছে গোলাপি চাঁদ নামে।

তবে চাঁদ কিন্তু প্রকৃতপক্ষে মোটেই এদিন গোলাপি হয়ে উঠবে না। তাই এই চাঁদকে ‘গোলাপি চাঁদ’ বলা হলেও তা আসলে কিন্তু মোটেই ঠিক না। তবে এই চাঁদ হতে চলেছে এ বছরের সবচেয়ে বড় এবং উজ্জ্বলতম সুপারমুন।

চাঁদ যখন অনেক বড় ও ইজ্জ্বল হয় এবং কক্ষপথ পৃথিবীর নিকটতম থাকে, তখন সুপারমুন হয়। তবে পূর্ণিমা হলেই যে সুপারমুন হবে, তা কিন্তু নয়। কারণ চাঁদ পৃথিবীর চারপাশে একটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে ঘোরে। আমাদের গ্রহ থেকে আরও অনেক দূরে থাকলেও পূর্ণিমার পূর্ণ চাঁদ দেখা যেতে পারে।

উত্তর আমারিকার একটি সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, ‘গোলাপি চাঁদ’ নামটি ফোলক্স সুবুলতা নামে একটি গোলাপি ফুলের নামের উপর ভিত্তি করে দেওয়া। এই ফুল উত্তর আমেরিকার পূর্ব দিকে বসন্তকালে ফোটে এবং এটি মোটেও চাঁদের রঙ নয়। পুরো গোলাকার চাঁদকে স্প্রাউটিং গ্রাস মুন, এগ মুন এবং ফিশ মুন নামেও ডাকা হয়।

এর আগে সুপারমুন দেখা গিয়েছিল ৯ মার্চ থেকে ১১ মার্চের মধ্যে। তবে ভারত থেকে এবারের সুপারমুন দেখার সম্ভাবনা নেই। ভারতীয় সমউ অনুযায়ী সকাল ৮ টা ৫০ মিনিটে এই সুপারমুন হবে। তাই আকাশের দিকে তাকিয়ে দেশবাসী এই বিশেষ দৃশ্য দেখতে পাবে না। তবে অনলাইনে সুপার মুন দেখতে পাওয়া যাবে।

Check Also

গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট থাকলেই মিলবে মোটা মাইনের চাকরি, যেভাবে আবেদন করবেন, রইলো পদ্ধতি!

ভারত অন্যান্য দেশের তুলনায় বেকারত্বের দিক থেকে অনেকটা পরিমাণে এগিয়ে । এই দেশে প্রতিদিন বেকারত্ব ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *