Breaking News
Home / HEALTH / দাঁতে সেনসিটিভিটি হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়, বাঁচার উপায় জেনে নিন

দাঁতে সেনসিটিভিটি হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়, বাঁচার উপায় জেনে নিন

গবেষকরা বরাবরই বলে আসছেন, মুখে কোনো ধরনের রোগ হলে কিংবা দাঁতের ব্যথার কারণে সারা শরীরে প্রভাব পড়ে। অবশ্য এই সত্য অনুধাবনের জন্য গবেষকদের দ্বারস্থ হতে হয় না; কমবেশি সবাই জানে যে, দাঁতের ব্যথা সহ্য করাটা বেশ কঠিন।

কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন আরো উদ্বেগের কথা; মুখের সমস্যা এবং দাঁতের ব্যথা থেকে হার্ট অ্যাটাক এবকং স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে। যাদের দাঁতে সেনসিটিভিটি (শিরশিরে অনুভূতি) আছে, ভবিষ্যতে তাদের হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বেশি।

দাঁতের গোড়া ক্ষয় হয়ে যাওয়া এবং ময়লা জমে থাকার ফলে এক ধরনের শিরশিরে অনুভূতি কাজ করে। অনেকেই ডাক্তারের কাছে গিয়ে দাঁতের ময়লা পরিষ্কার করে নিয়ে ক্ষয়ে যাওয়া স্থানে ফিলিং দিয়ে নেন। তবে বেশিরভাগই এসব ব্যাপারে উদাসীন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দাঁতের প্ল্যাক থেকে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোক হতে পারে। এজন্য নিয়মিত দাঁত পরিষ্কার করার ব্যাপারেও জোর দিয়েছেন তারা।

বিশেষজ্ঞরা আরো বলছেন, এমন এক ধরনের টুথপেস্ট রয়েছে, যা দাঁতের প্ল্যাক দূর করে এবং হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। প্ল্যাক এইচডি নামের ওই টুথপেস্ট ২০০৯ সালে প্রথম আবিষ্কার করা হয়। দাঁত এবং মাড়ি থেকে ক্ষতিকর যাবতীয় জীবাণু সরিয়ে ফেলে এই টুথপেস্ট।

অন্য যে কোনো টুথপেস্টের তুলনায় এটি বেশি পরিমাণে জীবাণু ধ্বংস করে। বিশেষজ্ঞরাও এই টুথপেস্ট ব্যবহারের পর প্রশংসা করেছেন। অনেক ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাক কিংবা স্ট্রোক করার পর রোগীদের সুরক্ষার দিক বিবেচনা করে ওই টুথপেস্ট দেওয়া হয়।

অ্যামেরিকান জার্নাল অব মেডিসিনে ওই টুথপেস্ট সম্পর্কে গবেষণার ফল প্রকাশ হয়েছে। তাতে বলা হয়, ৩০ দিন ধরে অন্য টুথপেস্ট ব্যবহারের পরের ৩০ দিন প্ল্যাক এইচডি টুথপেস্ট দেওয়া হয়। এতে করে ব্যাপক পার্থক্য দেখা গেছে। মাত্র ৩০ দিন প্ল্যাক এইচডি টুথপেস্ট ব্যবহারের পর দাঁত ও মাড়িতে ক্ষতিকর পদার্থ উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে।

Check Also

হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে আরও সতর্ক হতে হবে

করোনা মহামারীর শুরুর পর থেকে হাতের জীবাণু ধ্বংস করতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার অনেকাংশে বেড়ে গেছে। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *