Breaking News
Home / NEWS / মেয়ের কাছে যাওয়া হল না তাপস পালের, বিমান বন্দর থেকেই ভর্তি হন হাসপাতালে

মেয়ের কাছে যাওয়া হল না তাপস পালের, বিমান বন্দর থেকেই ভর্তি হন হাসপাতালে

তাপস পালের মৃত্যুতে শোকেরা ছায়া টলিউডে। পর পর স্মৃতি মন্থন করছেন টলিউড তারকারা। চিরঞ্জিত থেকে জিৎ, দেবশ্রী থেকে শ্রাবন্তী সকলেই এই মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। শোকাচ্ছন্ন অভিনেতার পরিবারও। আমেরিকায় নিজের মেয়ের কাছে যেতে চেয়েছিলেন তাপস পাল। কিন্তু তা আর হয়ে ওঠেনি। বিমান বন্দরেরি বুকে ব্যাথা শুরু হলে তাঁকে নিয়ে আসা হয় হাসপাতালে।

ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ তাপস পালকে ভর্তি করা হয় মুম্বইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে ভেন্টিলেশনে রাখা হয় অভিনেতাকে। ৬ দিন ভ্যান্টিলেশনে কাটানোর পর কিছুটা উন্নতি হয় অভিনেতার স্বাস্থ্যের। ৬ ফেব্রুয়ারি ভেন্টিনশন থেকে আইসিইউ-তে বের করা হয় তাঁকে। তবে সোমবার রাতে ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন তাপস। ভোর ৩টে ৩৫ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।

২০০১ সালে তিনি যোগ দিয়েছিলে রাজনীতিতে। ২০০১ সালের বিধানসভায় তৃণমূলের টিকিটে জয়। ২০০৬এ আবারও ঘাস ফুলের এমএলএ নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে বড় দায়িত্ব পেলেন। এবার কেন্দ্রের নির্বাচনে জয়। ২০১৪ সালে ব্যাক টু ব্যাক কৃষ্ণনগর থেকে সাংসদ নির্বাচনে জয়।

কিন্তু এরপরেই মস্ত ভুল। ২০১৪ সালেই চৌমাথা গ্রামে গিয়ে এক ছোট্ট জনসভায় গিয়ে ভয়ঙ্কর মন্তব্য প্রকাশ করে ফেলেন ঘরের ছেলে তাপস। কু-মন্তব্যের পরেই ঘরে-বাইরে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয় সাহেবকে। দলও পাশ থেকে সরে যায় এহেন মন্তব্যের পর থেকে। চাপের মুখে ক্ষমা চাইলেও এরপর থেকেই নিজেকে সবকিছু থেকে সরিয়ে নেওয়া।

দলীয় বৈঠকে অংশ নিলেও আর প্রকাশ্যে সেই অর্থে কোনও কর্মসূচি কিংবা অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি। এরপর ২০১৬ সালে রোজ ভ্যালি কাণ্ডে নাম জড়ানো যেন কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দিল। আর ঘরে ফেরা হয়নি ঘরের ছেলের। ক্রমে সাধারণের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছেন। চেয়েছিলেন আমেরিকায় মেয়ের কাছে চলে যেতে। তাও হল না। চলে গেলেন সবার সাহেব।

Check Also

গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট থাকলেই মিলবে মোটা মাইনের চাকরি, যেভাবে আবেদন করবেন, রইলো পদ্ধতি!

ভারত অন্যান্য দেশের তুলনায় বেকারত্বের দিক থেকে অনেকটা পরিমাণে এগিয়ে । এই দেশে প্রতিদিন বেকারত্ব ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *