Home / HEALTH / নিজের লিভারের অংশবিশেষ দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

নিজের লিভারের অংশবিশেষ দিয়ে মেয়েকে বাঁচালেন মা

সন্তানের জন্য মায়ের অবর্ণনীয় কষ্টের কথা সবারই জানা। সন্তানের জন্য নিজের জীবন বিপন্ন করতেও পিছপা হন না মায়েরা। এবার তারই দৃষ্টান্ত তৈরি করলেন এই মা।

জানা গেছে, মাত্র সাড়ে তিন মাস বয়সেই মেয়ের শরীরে ক্যান্সার ধরা পড়ে। চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন, লিভার পরিবর্তন করলে মেয়ে সেরে উঠবে। সে কারণে মেয়েকে বাঁচিয়ে তোলার জন্য নিজের লিভারের একটি অংশ দান করেন ওই নারী।

২৫ বছর বয়সী সোফি বার একবারও নিজের কথা চিন্তা করেননি। তারবার ভেবেছেন মেয়েকে সারিয়ে তোলার ব্যাপারে। যদিও শুরুর দিকে তিনি ডোনার খুঁজেছেন। তবে কোনো রকম সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না দেখে নিজেই লিভার দেওয়ার জন্য রাজি হয়ে যান।

তার মেয়ে প্যাট্রিসিয়া গত বুধবার নিজের প্রথম জন্মদিন পালন করেছে। জানা গেছে, বেশ হাসিখুশি আছে মেয়েটা। আর সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে সব কষ্ট ভুলে থাকছেন সোফি।

সোফি বলেন, মেয়ের ক্যান্সারের বিষয়টি জানার পর একেবারে ভেঙে পড়ি। তারপর যুক্তরাজ্যে যারা লিভার দিতে ইচ্ছুক, তাদের তালিকাও সংগ্রহ করি। কিন্তু লিভারের জন্য পর্যাপ্ত টাকা যোগাড় করাটা আমাদের জন্য কষ্টকর। সে কারণে ওতোটা না ভেবে নিজেই লিভার দেওয়ার সিদ্ধান্ত গহণ করি। এখন মেয়েটা আমার অনেক ভালো আছে। ওর দিকে দেখলে সবকিছু ভুলে থাকতে পারি।

Check Also

নিয়মিত পাউরুটি খেলে যে সমস্যায় পড়তে পারেন

দুই পিস পাউরুটির সঙ্গে মাখন ও জেলি খেয়েই অনেকেই কর্মব্যস্ত জীবন শুরু করেন। তবে অতিরিক্ত ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *