Breaking News
Home / NEWS / সু’শান্তের মৃত্যু’তে রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর হতে’ই সোশ্যাল মিডিয়ায়’ মুখ খুললেন অঙ্কিতা

সু’শান্তের মৃত্যু’তে রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর হতে’ই সোশ্যাল মিডিয়ায়’ মুখ খুললেন অঙ্কিতা

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর দেড় মাস পেরিয়ে গেল। তবে এখনো এই ঘটনার সঠিক কারণ জানাতে ব্যর্থ মুম্বই পুলিশ। এরপর মঙ্গলবার খোদ সুশান্তের বাবা কে কে সিং পাটনার রাজেন্দ্রনগর থানায় সুশান্তর বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। আর এই অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেই নতুন করে শোরগোল শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এই শোরগোলকে আরও বেশি প্রজ্বলিত করেন অঙ্কিতা লোখান্ডে।

মঙ্গলবার সুশান্তের বাবা ৬ পাতার একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেন রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। যে অভিযোগপত্রে ৩০৬, ৩৪১, ৩৪২, ৩৮০, ৪০৬ এবং ৪২০ ধারায় আত্মহ’ত্যায় প্ররোচনা, জোর করে ধরে রাখা, বাড়ির জিনিস চুরি, চুক্তিভঙ্গ, প্রতারণা ইত্যাদি মামলায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। পাশাপাশি অভিযোগপত্রে রিয়ার বিরুদ্ধে ৭টি প্রশ্ন এবং প্রায় ৮ থেকে ৯ অভিযোগ আনা হয়। আর এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই অঙ্কিতা লোখান্ডে তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একটি স্ট্যাটাস আপডেট করেছেন যেখানে লেখা রয়েছে ‘সত্যের জয়’।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর এক মাস ধরে মুখে কুলুপ এঁটে বসে ছিলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজার শোরগোল উঠলেও তিনি মুখ খোলেননি। বরং ঘটনার পর থেকেই তিনি নিজেকে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে সরিয়ে রেখেছিলেন। এক মাস পর একটি পোস্ট করেছিলেন তিনি। এছাড়াও সুশান্তের শেষ ছবি দিল বেচারা রিলিজ হওয়ার আগে ছিল আরেকটি পোস্ট। তবে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেই তাঁর এইভাবে মুখ খোলা আলাদা তাৎপর্য এনে দিয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সুশান্তের মৃত্যুর দেড় মাস পর রিয়া চক্রবর্তী এবং তার পরিবারের বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের, হঠাৎ করে অঙ্কিতা লোখান্ডের সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন পোস্ট, আর এসবের পর বিনোদন দুনিয়ায় এখন একটি প্রশ্নই ঘুরছে, সুশান্তের মৃত্যুর রহস্য উদ্ঘাটিত হবে তো!

Check Also

একেই বলে ভালোবাসা! স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়লো স্বামীর!!!

সং’যুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহরে বসবাসকারী ৩২ বছর ব’য়সী এক ভারতী’য় নাগরিক নিজের অ্যাপার্টমেন্টে লাগা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *