Breaking News
Home / HEALTH / শ্বেতী রোগ থেকে মুক্তি পেতে এই সহজ ৫ টি উপায় জেনেনিন

শ্বেতী রোগ থেকে মুক্তি পেতে এই সহজ ৫ টি উপায় জেনেনিন

শ্বেতী রোগের জন্য ত্বকের স্বাভাবিক রং হারিয়ে সাদা রং ধারণ করে।এই রোগ শরীরের যেকোনো অংশে আক্রান্ত করতে পারে।ত্বকে মেলানিন উৎপাদক কোষ তার সঠিক কাজ করতে ব্যর্থ হলে এই স্বাতী রোগ দেখা দেয়।তবে এই রোগ জীবনের জন্য হুমকি নয় বরং এটি একটি স্বয়ংক্রিয় ইমিউন অবস্থা যা ইমিউন সিস্টেম ত্বককে আক্রান্ত করে।স্বাতী রোগ থেকে মুক্তির উপায় গুলি হলো:-

>প্রত্যেকের আন্ত্রিক স্বাস্থ্যের জন্য ইমিউন সিস্টেম পরীক্ষা করা

> মানসিক চাপ প্রদাহ ঘটায় যা খাদ্য নালীকে দুর্বল করে তুলে, ফলে ইমিউন সিস্টেমকে এই রোগ সহজেই আক্রমণ করে ফেলে।তাই আক্রান্তদের মানিওসিক চাপের অবসান ঘটাতে হবে।

>ক্যাফিন, ডার্ক চকোলেট, গ্লুটেন, দুধ বা দুগ্ধজাত পণ্য, সাদা চিনি এবং সাইট্রাস ফলের মতো কিছু খাবার শ্বেতী রোগকে বাড়িয়ে তুলবে, তাই আপনি এগুলো বর্জন করুন।

> হলুদের গুঁড়োর সঙ্গে সরিষার তেল ,মিশিয়ে একটানা ১৫-টো দিন ত্বকে লাগালে এই রোগ হ্রাস পেতে পারে।

> কাঠবাদাম শ্বেতী রোগ দূর করতে বেশ কার্যকরী।অথবা পেঁপের ভেতরের অংশ আক্রান্ত স্থানে ঘষলে এই রোগ হ্রাস পেতে পারে।

সকালের ব্রেকফাস্টে যা খান Google CEO

গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাই সম্প্রতি দায়িত্ব পেয়েছেন গুগলের প্যারেন্ট কোম্পানি আলফাবেটের দায়িত্ব।লফাবেট থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন এর প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেইজ ও সের্গেই ব্রিন। ২০০৪ সালে গুগলে যোগ দেওয়া পিচাই নিজের কর্মদক্ষতায় ল্যারি ও ব্রিনের আস্থাভাজন হয়ে উঠেছেন।শুধু গুগল নয় এর পাশাপাশি তিনি ৮ টি প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব প্রদান করেন।তবে প্রশ্ন হলো এতো দায়িত্ব তিনি সামলান কি করে? অনেকেই বলে যে তার শরীরের মূল এনার্জি এনে দেয় সকালের খাবার।

সম্প্রতি প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট রিকোডকে এক সাক্ষাৎকারে তাঁর সকালের খাবারের কথা বলেন। পিচাই বলেন, তিনি পুরোনো ঘরানার মানুষ। একটু বেলা করেই ঘুম থেকে ওঠেন। অফিসে যাওয়ার আগে তাঁর খাবারের সঙ্গে খবরের কাগজ পড়া চাই। খাবারে অবশ্যই চা থাকতে হবে। চা ছাড়া কি সকাল জমে!চায়ের সঙ্গে অবশ্যই থাকতে হবে টোস্ট বিস্কুট। এটাই তার বেশি পছন্দ।

Check Also

দাঁতে অ’সহ্য য’ন্ত্র’ণা, এই ঘরোয়া টোটকাতেই পাবেন ম্যাজিকের মত ফল

দাঁতে ব্য’থা অত্যন্ত য’ন্ত্রণাদা’য়ক, তাই দাঁতের স্বা’স্থ্য ধরে রাখতে কিছু ঘরোয়া টোটকা মেনে চলুন। নুন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *