Breaking News
Home / VIRAL / মানুষের বি’পদ দেখে সাহায্যের হাত বাড়াল বন্যপ্রানী ওরাংওটাং

মানুষের বি’পদ দেখে সাহায্যের হাত বাড়াল বন্যপ্রানী ওরাংওটাং

নদীতে কাদায় আ’টকে পড়া এক ব্যক্তিকে উ’দ্ধারে একটি ওরাংওটাংকে এগিয়ে আসতে দেখা গেল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে।ভিডিওতে দেখা যায়, নদীর পাশে ঝোপের মধ্যে বুক পর্যন্ত কাদায় আ’টকে পড়ে আছে এক ব্যক্তি।

তাকে উ’দ্ধারের জন্য ঝো’পে দাঁড়িয়ে আছে একটি ওরাং‌ওটাং। হঠাৎ নদীর দিকে পুরো ঝুঁ’কে পড়ে ওই ব্যক্তির দিকে হাত বাড়িয়ে দিয়েছে সে।বি’পদে পড়া মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়ানো ওরাং‌ওটাংয়ের সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছ’ড়িয়ে পড়তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

জানা গেছে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বোর্নিও দ্বীপের সংরক্ষি’ত বনাঞ্চল থেকে ছবিটি তুলেছেন অনিল প্রভাকর নামের এক ব্যক্তি। বন্ধুর সঙ্গে সাফারিতে গিয়ে এই ছবি তুলেছেন তিনি।বোর্নিও ওরাংওটাং সারভা’ইভাল ফাউ’ন্ডেশনের ফেসবুক পেজ থেকে বৃহস্পতিবার শেয়ার করা হয়েছে এই ভিডিও।

ওরাংওটাং‌য়ের মান’বিকতা মু’গ্ধ হয়েছেন সবাই। তবে ওরাং‌ ওটাং‌ সা’হায্যের হাত বাড়ালেও বিপদে পড়া ব্যক্তি তার হাত ধ’রেননি বলে জানিয়েছেন অনিল। বন্যপ্রাণী বলেই নাকি ওরাংওটাংয়ের হাত ধ’রেননি ওই ব্যক্তি।

ডাস্টবিন থেকে তুলে ৩ দিনের শিশুকে বাঁচাল ক্ষুধার্ত কুকুর!

মানুষ মানুষকে ঠকাতে পারে। খারাপ ব্যবহার করতে পারে। বিশ্বাসের জায়গায় আঘাত করতে পারে। কিন্তু কুকুরের বিশ্বাসের জায়গা করে নিতে সময় লাগে মাত্র কয়েক সেকেন্ড। মানুষের যদি কোন আপন বন্ধু বলে কেউ থাকে, তা হল এই অবলা প্রাণীটি। মানুষের প্রাণ বাঁচিয়েছে তাঁর পোষ্য কুকুর, এমন খবর আমাদের জানা। কিন্তু এই ঘটনার খবর জানলে, আপনি আরও একবার কুকুরের ব্যাপারে ভাবতে শুরু করবেন।

ওমানের রাস্তায় খাবারের খোঁজে ডাস্টবিনের চারিদিক ধুরঘুর করছিল এই কুকুরটি। খাবারের খোঁজ করতে করতে হঠাৎ খুঁজে পায় ৩ দিনের এক সদ্যজাত শিশুর দেহ। কাটা ছিল না নাভির নাড়িও। প্রচন্ড ক্ষুধার্ত কুকুরটি শিশুর দেহটি দেখতে পেয়েই তড়িঘড়ি মুখে তুলে নেয়। মুখে তুলেই বুঝতে পারে, ব্যাপারটা সুবিধার নয়।

শিশুটির শ্বাস তখনও চলছিল, এই মনে করে শিশুটিকে মুখে তুলে নিয়ে একটি বাড়ির দরজার সামনে গিয়ে রাখে, এরপর খুব চিৎকার শুরু করে সে। কুকুরের চিৎকার শুনেই বাড়ির মালিক দরজা খুলতেই দেখে একটি সদ্যজাত শিশু শুয়ে রয়েছে।

মৃতপ্রায় শিশুটিকে পুণর্জন্ম দিয়ে ফের খাবারের খোঁজ শুরু করে দেয় ওই কুকুরটি। নিজে ক্ষুধার্ত হলেও, দুধের শিশুটির দেহে একটি দাঁতের কামড়ও বসায়নি সে। কুকুরের উদারপনা মানসিকতার পরিচয় বারে বারে পাওয়া যায়। এই ঘটনাটি ফের প্রমাণ করল, কুকুর মানুষের আসল ‘বন্ধু’।

Check Also

এক’ফোটা দুধ পেতে মৃ’ত মায়ের পা’শে অবুঝ শিশুর আর্তনাদ

মাকে ডাকছে অবুঝ শিশু। কিন্তু সন্তানের ডাকে সাড়া নেই মায়ের। মা যখন সাড়া দিচ্ছে না ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *