Breaking News
Home / NEWS / মৃ’ত্যু’য’ন্ত্র’ণায় টানা ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে ছিল হাতিটি

মৃ’ত্যু’য’ন্ত্র’ণায় টানা ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে ছিল হাতিটি

মৃ’ত্যুর আগ পর্যন্ত টানা তিন দিন বি’চ্ছি’ন্ন শুঁ’ড় ও ক্ষ’ত’বি’ক্ষ’ত মুখ পানিতে ডুবিয়ে রেখেছিল সেই হাতিটি। শারীরিক য’ন্ত্র’ণা থেকে স্ব’স্তি পেতে মাথা তুলতে চায়নি সে। ময়নাতদন্তে ওই হাতির পেটে বাচ্চারও অ’স্তি’ত্ব পাওয়া গেছে।

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য কেরালাতে একটি অন্তঃসত্ত্বা হাতির মৃ’ত্যুর ঘ’টনায় বিশ্বজুড়ে তী’ব্র সমালোচনা সৃষ্টি হয়েছে। আনারসের ভেতরে বি’স্ফো’র’ক ভরে হাতিটিকে খাইয়ে দেওয়া হয়েছিলো।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, উত্তর কেরলের মালাপ্পুরমের এক বন বিভাগের কর্মকর্তা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই হ’ত্যা’কা’ণ্ডে’র বিশদ বিবরণ দেওয়ার পরে তা ক্র’মশ ছড়িয়ে পড়ে। তাঁর পোস্ট থেকে জানা যায়, হাতিটি জঙ্গল থেকে বেরিয়ে এসে কাছের গ্রামে উপস্থিত হয় খাবারের সন্ধানে। সে পথ দিয়ে হাঁটার সময় তাকে আনারস খেতে দেয় স্থানীয় বাসিন্দারা।

ভারতের বন বিভাগের কর্মকর্তাদের ভাষ্য অনুযায়ী, হাতিটির বয়স আনুমানিক ১৪-১৫ বছর।

আ’হ’ত হওয়ার পর হাতিটি এতটাই শারীরিক য’ন্ত্র’ণা’র মধ্যে ছিল যে সে টানা তিনদিন ভেলিয়ার নদীতে দাঁড়িয়ে ছিল। এই সময়ের মধ্যে হাতিটিকে মেডিকেল সেবা দেওয়ার চেষ্টা করা হলেও হাতিটিকে পানি থেকে সরানো সম্ভব হয়নি। তিনদিন ধরে হাতিটির মুখ ও শুঁড় পানির নিচেই ছিল।

স্থানীয় একটি খামারের পাশে হাতিটিকে ২৫ মে প্রথমবার লক্ষ্য করে বন বিভাগ। পা’লা’ক্কা’ড় এলাকার সাইলেন্ট ভ্যালি নাশনাল পার্কের বন্যপ্রাণী বিভাগের ওয়ার্ডেন স্যামুয়েল ওয়াচা বলেন, হাতিটি কোথায় আ’হ’ত হয়েছিল তা আমরা জানতে পারিনি। পানির নিচে থেকে সে পানি খাচ্ছিল, যা সম্ভবত তাকে কিছুটা আরাম দিচ্ছিল। হাতিটির চোয়ালের দুই পাশই ক্ষ’তি’গ্র’স্থ হয়েছে। তার দাঁতও ভেঙে যায়।

পা’ল্লা’কা’ড়ের মান্নারকাড় অঞ্চলের বন বিভাগ কর্মকর্তা সুনিল কুমার জানান, হাতিটি আ’হ’ত হয়েছে বুঝতে পারার পর বন বিভাগের কর্মকর্তারা চেষ্টা করেছিলেন নদী থেকে হাতিটিকে সরিয়ে এনে তার চিকিৎসা দেওয়ার। কিন্তু হাতিটিকে কিছুতেই নদী থেকে সরানো যায়নি।

অবশেষে ২৭ মে নদীতে দাড়িয়ে থাকা অবস্থাতেই হাতিটি মা’রা যায়। তার ম’র’দেহ ময়নাতদন্তের পর জানা যায় যে হাতিটি অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

সাইলেন্ট ভ্যালি নাশনাল পার্কের বন্যপ্রাণী বিভাগের ওয়ার্ডেন স্যামুয়েল ওয়াচা জানান, এ ঘ’টনায় একটি মা’ম’লা হয়েছে। দ্রুত ন্যাক্কারজনক হ’ত্যায় জ’ড়িতদের শনা’ক্ত করার চেষ্টাও চলছে।

ফেসবুকে হ’ত্যা’কা’ণ্ডের বিশদ বি’বরণ দেয় সেই কর্মকর্তা মোহন কৃষ্ণন লেখেন, ও সবাইকে বিশ্বাস করেছিল। আনারসটি খাওয়ার পরে যখন তার মুখের মধ্যে সেটিতে বি’স্ফো’র’ণ হল ও নিশ্চয়ই শিউরে উঠেছিল। নিজেকে নিয়ে ভেবে নয়, বরং ওর শরীরে বেড়ে ওঠা প্রাণ, যে আরও ১৮ থেকে ২০ মাস পরে ভূমিষ্ঠ হতো তাকে নিয়ে।

Check Also

একেই বলে ভালোবাসা! স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়লো স্বামীর!!!

সং’যুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহরে বসবাসকারী ৩২ বছর ব’য়সী এক ভারতী’য় নাগরিক নিজের অ্যাপার্টমেন্টে লাগা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *