Breaking News
Home / NEWS / ডিসেম্বরের মধ্যে ৬৭ কোটি ভারতবাসী করোনা আক্রান্ত হবে, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যান

ডিসেম্বরের মধ্যে ৬৭ কোটি ভারতবাসী করোনা আক্রান্ত হবে, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যান

করোনা সংক্রমণের ক্ষেত্রে ভারতের বর্তমান পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। ভারতের করোনা সংক্রমণের পরিসংখ্যান অনুযায়ী শুক্রবার একদিনেই ভারতে আক্রান্ত হন ৭,৩০০ জন। শনিবার এই সংখ্যাটা আরও বেড়ে আট হাজারের কাছে চলে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে ৬.৫ শতাংশ হারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে যা ইরান, ইতালি, ফ্রান্স, স্পেন, জার্মানি থেকে বেশী।

জার্মানিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখের ঘর পেরোনোর পরে ছিল ১.৮২ শতাংশ, ফ্রান্সে ছিল ১.৭৬ শতাংশ। স্পেনে ২.৮৪ শতাংশ এবং ইতালিতে ৩.১৭ শতাংশ। অবশ্য আমেরিকা যুক্তরাষ্ট বা রাশিয়ার থেকে ভারতের হার আপাতত কম। বর্তমানে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ্য ৭৫ হাজার এর ঘর ছাড়িয়ে গেছে।

যেখানে ভারতে মৃতের সংখ্যা ৫০০০ হতে চলেছে সেরকম পরিস্থিতিতেই আগামী ৩১ তারিখ দেশে শেষ হতে চলেছে চতুর্থ দফার লক ডাউন। পঞ্চম দফার লক ডাউনের কথা বলা হলেও তাকে আক্ষরিক অর্থে লক ডাউন বলা যায় না। এই লক ডাউনে করোনা ভাইরাসকে সঙ্গে করেই স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা চালাবে ভারত।

করোনা সংক্রমণে চিনকে ছাপিয়ে গেল ভারত, প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যান
আর এই সিদ্ধান্তই ডেকে আনতে পারে বিপদ। এরকমটাই মনে করছেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ মেন্টাল হেল্থ অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সের চিকিৎসক ও গবেষকরা।তারা জানান যে জুলাই মাসে ভারতে করোনা সংক্রমন চূড়ান্ত পর্যায় যাবে এবং ডিসেম্বর মাসের মধ্যে ভারতের ৬৭ কোটি মানুষ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হবেন।

তবে এই সংক্রমণের ক্ষেত্রে আরেকটি বিশেষ কথারও উল্লেখ করেছেন তারা। তাদের কথায় আক্রান্ত ব্যাক্তিদের ৯০ শতাংশই জানবেন না যে তাদের শরীরে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছে। বিজ্ঞানীদের মতে ডিসেম্বর মাসের মধ্যে আক্রান্ত ৬৭ কোটি জনগণের মধ্যে মাত্র ৫ শতাংশ মানুষের অবস্থাই গুরুতর হবে, অর্থাৎ প্রায় ৩ কোটি মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হবে।

এবার দেখা যাক ভারতের বর্তমান চিকিৎসা ব্যবস্থা। ভারতে করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তিদের চিকিৎসার জন্য আছে মাত্র ১ লক্ষ ৩০ হাজার বেড। এই অবস্থায় ৩ কোটি মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হলে ভারতের চিকিৎসা ব্যবস্থা যে কতটা ভেঙে পড়তে পারে তার আন্দাজ লাগানোই যায়।ফলে উদ্বেগ বাড়ছে চিকিৎসক দের।

ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ১ লাখ ৭৫ হাজার ৫০০ এর কাছাকাছি। শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৬২ হাজার। একদিনেই ১৬৬ জন মারা গেছেন সেই রাজ্যে। গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই দেশে প্রায় ৮০০০ মানুষ করোনা সংক্রমিত হচ্ছেন। দৈনন্দিন ভিত্তিতে এই সংক্রমন প্রতিনিয়ত টপকে যাচ্ছে আগের দিনের রেকর্ডকে।

এমন পরিস্থিতিতে বেশ কিছুদিন যাবত পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজ রাজ্যে ফেরানোর ব্যবস্থা চলছে। প্রতিদিন হাজারের সংখ্যায় পরিযায়ী শ্রমিক নিজের রাজ্যে ফিরছেন। এই অবস্থায় দেশের করোনা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Check Also

হাওড়া স্টে’শনে এই ভুল’টি করলে’ই এবার মোটা টাকার জরিমানা, পড়ুন বিস্তারিত

স্টেশনে কিংবা ট্রেনের বগির ভিতরে বিজ্ঞাপন দিয়েও কোনো কাজের কাজ হচ্ছে না, জোরদার চলছে মাইকে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *